২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ব্যাক-আপ ভেন্যু শ্রীলঙ্কা ও আমিরাত

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:১৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০২০ | আপডেট: ৯:১৩:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০২০

করোনা মহামারীর কারণে ২০২০ টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত হয়ে গিয়েছে। তবে ২০২১ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ ভারতের মাটিতে হবে নির্ধারিত সময়ে। আইসিসি আগেই এমনটা জানিয়েছে। তবে ভারত বিশ্বকাপ আয়োজন করতে না-পারলে তা চলে যেতে পারে শ্রীলঙ্কা বা সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে।

২০২১ টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ ভারতের পাশাপাশি ব্যাক-আপ হিসেবে দ্বীপরাষ্ট্র এবং মরু শহরকে রাখছে আইসিসি৷ ক্রিকইনফো-এর এক প্রতিবেদন এমনটাই দাবি করা হয়েছে।

শ্বে তৃতীয় সর্বোচ্চ করোনা সংক্রমণের দেশ এখন ভারত। এখনো পর্যন্ত দেশটিতে ২ মিলিয়নের অধিক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আর মারা গেছে ৪৫ হাজারের অধিক। এমন নাজুক পরিস্থিতির কারণে চলতি বছরের আইপিএল আয়োজন করা হচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

কবে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি হবে। সেটা এখনো কেউ নিশ্চয়তা দিতে পারছে না। সে কারণে ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য ব্যাক-আপ ভেন্যু হিসেবে শ্রীলঙ্কা ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কথা চিন্তা-ভাবনা করছে আইসিসি। কোনো কারণে আগামী বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতের মাটিতে আয়োজন করা সম্ভব না হলে যাতে এই দুটি ভেন্যুর কোনো একটিতে আয়োজন করা যায় টুর্নামেন্টটি।

প্রতিটি আইসিসি ইভেন্টেই সম্ভাব্য ব্যাক-আপ ভেন্যু ঠিক করে রাখার রীতিটা কিন্তু পুরোনো। তবে বর্তমান করোনাকালে এ ব্যাপারটি বিশেষ গুরুত্ব বহন করে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ব্যাক-আপ ভেন্যু নিয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেননি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি। তবে বিসিসিআই এখনো ২০২১ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের ব্যাপারে অবিচল। হাতে এখনো এক বছরেরও বেশি সময় থাকায় এনিয়ে চিন্তিত নয় ভারতীয় ক্রিকেটের কর্তা-ব্যক্তিরা। এজন্য কেউ মন্তব্য করতেও রাজি নন।

টুর্নামেন্টটি তারা ২০২২ সালে আয়োজন করতে চায় না। কারণ টানা তিনটি বড় ক্রিকেট আসর (২০২৩ আইপিএল ও ২০২৩ বিশ্বকাপ) আয়োজনের চাপ নিতে চায় না ভারত।