২৪৪ জনকে সাজিয়ে ভুয়া কাগজ, কোটি টাকা আত্মসাৎ!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:৫৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৮ | আপডেট: ৪:৫৪:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৮
ফাইল ছবি

২৪৪ জন ভুয়া ব্যক্তির নামে ভুয়া কাগজপত্রের মাধ্যমে ঋণের সোয়া ২ কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে জনতা ব্যাংকের তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (২৭ আগস্ট) দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে ওই মামলা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

আসামিরা হলেন- পটুয়াখালীর জনতা ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার মো. গোলাম আজম, নতুন বাজার শাখার দ্বিতীয় কর্মকর্তা মীর জালালউদ্দীন ও প্রাক্তন এসইও মো. নজরুল ইসলাম।

অনুসন্ধান প্রতিবেদন সূত্রে দুদক জানায়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ভুয়া ব্যক্তিদের নামে জাল চাকরিজীবী প্রত্যয়নপত্র সৃজনের মাধ্যমে ঋণ বিতরণ দেখিয়ে ২ কোটি ৩৫ লাখ ৪৭ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন।

আসামিরা ভুয়া ব্যক্তিদের নামে কাগজপত্র তৈরি করে ২০০৮ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ওই টাকা আত্মসাৎ করেন। জনতা ব্যাংকের বিভাগীয় তদন্তেও চাকরিজীবী ঋণ, ব্যাংকের বিভিন্ন হিসাবে ঋণ বিতরণে গড়মিল এবং সিসি ঋণ বিতরণে বিভিন্ন অনিয়ম ও আত্মসাতের বিষয়সমূহ উদঘাটিত হওয়ায় গোলাম আজমকে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

দুদক দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারা এবং ১৯৪৭ সালের ২ নং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মামলা দায়ের করবে।