৩৩১ রানের টার্গেট দিয়েছে উইন্ডিজ!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:১৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ | আপডেট: ২:১৭:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৮
সংগৃহীত

বিকেএসপিতে দুর্দান্ত শুরুর পর ইনিংসের মাঝপথে স্বাগতিক বিসিবি একাদশের বোলিং তোপে ১৭ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে সফরকারী উইন্ডিজ ক্রিকেট দল।

বিসিবি একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেটের বিনিময়ে স্বাগতিদের বিপক্ষে ৩৩১ রানের পুঁজি পেয়েছে সফরকারীরা। উইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ রান এসেছে শাই হোপের ব্যাট থেকে।

একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্তের পর সফরকারীদের উদ্বোধনী জুটিতে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন কাইরন পাওয়েল ও শাই হোপ। দুজনে মিলে শতরানের জুটি গড়ে সফরকারীদের স্বপ্ন দেখান রান পাহাড় গড়ার।

প্রতিপক্ষ শিবির যখন ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠছে তখন ইনিংসের ১৬তম ওভারে প্রথমবারের মতো আক্রমণে এসে দলকে সাফল্য এনে দেন নাজমুল ইসলাম অপু। স্বাগতিক দলের বাঁহাতি এ স্পিনারের বল তুলে মারতে গিয়ে কায়েসের হাতে ধরা পড়লে বিদায় ঘটে পাওয়েলের। ৪৯ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৪৩ রান করে তিনি ফিরলে দলীয় ১০১ রানে প্রথম উইকেটের পতন ঘটে সফরকারীদের।

এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে হোপের সাথে যোগ দেন ড্যারেন ব্রাভো। শুরু থেকে আত্মবিশ্বাসের সাথে খেলতে থাকলেও ক্রিজে বেশিক্ষণ থিতু হতে পারেননি তিনি। মেহেদি হাসান রানার বলে আকবর আলির হাতে ক্যাচ দিলে বিদায় ঘটে তার। এর ফলে দলীয় ১৫৯ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে ক্যারিবীয়ানদের।

৩৩ বলে ২৭ রান করে ব্রাভোর আউট হওয়ার মধ্য দিয়ে খেলার ফিরে স্বাগতিকরা। তার বিদায়ের কিছুক্ষণ পর অপুর আঁদে পড়েন অর্ধশতক হাঁকিয়ে শতকের পথে হাঁটতে থাকা হোপ। আউট হওয়ার আগে ৬ চার ও ৩ ছক্কায় ৭৮ রানের তান্ডব ছড়নো ইনিংস খেলেন তিনি।

দুই সেট ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দেওয়ার পর ম্যাচে শুরু হয় বিসিবি একাদশের বোলারদের বোলিং তোপ। ৫ রান করা স্যামুয়েলসের উইকেট মাশরাফির শিকারের পর নিজের প্রথম বলে প্রতিপক্ষ শিবিরের অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েলকে শূন্য হাতে সাজঘরের পথ ধরান শামীম। মুহূর্তের মধ্যে ১৭৬ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে উইন্ডিজ শিবির।

১৭ রানের ব্যবধানে স্কোরবোর্ড যখন ১ উইকেটে ১৫৯ রান থেকে ৫ উইকেটে ১৭৬ রানে পরিণত হয়েছে তখন অতিথীদের চিন্তার ভাঁজ ধুর করতে ২২ গজে চেজের সাথে জুটি গড়েন শিমরন হেটমায়ার।

দ্রুতগতিতে শুরু থেকে দুজনেই রান তুলতে থাকেন। ২৭ বলে ৩৩ রানের মাঝারি মানের ঝড়ো ইনিংস খেলার পর বাউন্ডারি লাইনে সৌম্য সরকারের দুর্দান্ত ক্যাচে রুবেলের বলে হেটমায়ার আউট হলে ২১৫ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারায় সফরকারীরা। তবে এতেও থামেনি তাদের রান তোলার গতি।

শেষ দিকে চেজের সাথে অ্যালানের তাণ্ডবে পাহাড়সম পুঁজির দেখা পায় সফরকারীরা। অ্যালান রুবেলের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ৪৮ রানে সাজঘরে ফিরলেও চেজ ৬৫ রান রানে অপরাজিত থাকে। আর এতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে স্কোরবোর্ডে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ৩৩১ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করাতে সক্ষম হয় সফরকারীরা।

স্বাগতিক বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট লাভ করেছেন নাজমুল ইসলাম অপু ও রুবেল হোসেন। তাছাড়া বাকি বোলারদের মধ্যে মাশরাফি, রানা ও শামীম প্রত্যেকেই নিজেদের প্রাপ্তির খাতায় জমা করেছেন একটি করে উইকেট।

স্কোরকার্ড-
উইন্ডিজ: ৩৩১/৮ (৫০ ওভার)
পাওয়েল ৪৩(৪৮), হোপ ৭৮(৮৪), ব্রাভো ২৭(৩৩), স্যামুয়েলস ৫(১২), হেটমায়ার ৩৩(২৭), পাওয়েল ০(৫), চেজ ৬৫*, অ্যালেন ৪৮, রুবেল ১০-০-৫৫-২, মাশরাফি ৮-১-৩৭-১, রানা ১০-০-৬৫-১, শাহিন ২-০-১৮-০, সৌম্য ৮-০-৭২-০, অপু ১০-০-৬১-২, শামীম ২-০-১৬-১।
Add Image