৭০% মানুষ ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহী : গবেষণা

প্রকাশিত: ৪:৫৫ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৩, ২০২১ | আপডেট: ৪:৫৫:পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৩, ২০২১
ফাইল ছবি

কোভিড-১৯ মহামারি নিয়ন্ত্রণে আনার অংশ হিসেবে বিশ্বজুড়েই গণ টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে।

টিকা মানুষের দেহকে নির্দিষ্ট কোন একটি সংক্রমণ, ভাইরাস কিংবা রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করতে প্রস্তুত করে। টিকায় মূলত যে বস্তুটির কারণে ওই রোগটি হয় তার একটি নিষ্ক্রিয় বা দুর্বল অংশ থাকে যাকে “ব্লু-প্রিন্ট” বলা হয়।

দেশের প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষ ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহী। তবে ‘অবশ্যই ভ্যাকসিন নেবেন’ এমনটা জানিয়েছেন ২৬ শতাংশ। সম্প্রতি বাংলাদেশের মানুষের ভ্যাকসিন নেওয়ার আগ্রহ ও ভ্যাকসিনের জন্য টাকা খরচের ইচ্ছার উপর এক গবেষণা করা হয়। এ গবেষণাতেই এমন তথ্য উঠে এসেছে। সুইজারল্যান্ডের বিখ্যাত পিয়ার রিভিউড জার্নাল এমডিপিআই ২১ এপ্রিল এ গবেষণাটি প্রকাশ করেছে।

গবেষণাটিতে অংশ নেন ৬৯৭ জন। তাদের সবাই বাংলাদেশে বসবাস করছেন। এতে ৫৩ দশমিক ৪ শতাংশ অংশগ্রহণকারী ছিলেন পুরুষ ও ৪৬ দশমিক ৬ শতাংশ নারী। তবে অংশগ্রহণকারীদের বেশিরভাগই (৬৫.৬ শতাংশ) ছিলেন ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়েসি। রাজধানী ঢাকার বাসিন্দা ছিলেন ৭১ দশমিক ৭ শতাংশ। তারা অনলাইনে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

গবেষণায় দেখা যায়, ‘অবশ্যই ভ্যাকসিন নেবেন’ এমনটা জানিয়েছেন ২৬ শতাংশ অংশগ্রহণকারী। ‘সম্ভবত নেবেন’— এমন মানুষের সংখ্যা ৪৩ শতাংশ। একই গবেষণায় দেখা গেছে, ‘অবশ্যই ভ্যাকসিন নেবেন না’— এমন মত দিয়েছেন ৭ শতাংশ মানুষ, আর ‘সম্ভবত নেবেন না’ এমন মানুষের সংখ্যা ২৪ শতাংশ। অর্থাৎ দেশের প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষ ভ্যাকসিন নিতে ইচ্ছুক।

গবেষণায় অংশ নেওয়া ৫৯ দশমিক ৩ শতাংশ মনে করেন, বর্তমান অবস্থায় তাদের করোনা সংক্রমিত হওয়ার জোর আশঙ্কা রয়েছে। বেশিরভাগই (৮৪ দশমিক ২ শতাংশ) মনে করেন করোনাভাইরাস একটি মারাত্মক সংক্রামক রোগ, তারা এটিকে জীবনের ঝুঁকি হিসেবে দেখেন।

গবেষণায় দেখা যায়, ৬৮ দশমিক ৪ শতাংশেরই ভ্যাকসিনের জন্য টাকা খরচে আপত্তি নেই। ভ্যাকসিনের জন্য তারা গড়ে ৭ ডলার খরচ করতে রাজি আছেন। অর্ধেকের চেয়ে বেশি (৫২ দশমিক ২ শতাংশ) জানান, ভ্যাকসিনটি কোন দেশের তৈরি সেটা তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া প্রায় ৩৩ শতাংশই জানিয়েছেন যে, তারা সরকারের দেওয়া বিনামূল্যে ভ্যাকসিনের চেয়ে প্রাইভেট সেক্টর থেকে টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন কিনতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন।

গবেষণাটিতে বলা হয়, ভ্যাকসিন নিয়ে দ্বিধা বিশ্বের ১০টি মারাত্মক স্বাস্থ্যগত হুমকির একটি। ২০১৯ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, ভ্যাকসিন না নেওয়ার মানসিকতার অন্যতম কারণ হলো সেটা কিনতে না পারা, ভ্যাকসিন নেওয়ার জটিলতা এবং আস্থার অভাব। তবে এর বাইরেও ভ্যাকসিনবিমুখ মনোভাবের অনেক কারণ রয়েছে।

গবেষণার ভূমিকায় বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, দেশের ৯০ শতাংশ মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনলে, ভ্যাকসিনের ৮০ শতাংশ কার্যকারিতা ও ১০ শতাংশ মাস্ক ব্যবহারে যুক্তরাষ্ট্র করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে পারে। তবে যদি জনসংখ্যার ৫০ শতাংশ মাস্ক পরেন তাহলে ৮২ শতাংশ মানুষকে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করলেই করোনা থেকে মুক্তি সম্ভব।