৯০ শতাংশ ড্রপলেট আটকাতে পারে ‘কাপড়ের মাস্ক’!

প্রকাশিত: ৯:৫৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০২০ | আপডেট: ৯:৫৫:অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০২০
ফাইল ছবি

বিশ্বব্যাপী মরণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডব চলছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত এর কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কার করা সম্ভব হয়নি। ফলে সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক পরিধানসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মানার ওপরই জোর দিচ্ছেন বিশ্লেষকরা। তবে মাস্কের ধরণ নিয়ে রয়েছে নানা বিতর্ক। একটি গবেষণা বলছে, হাঁচি-কাশি থেকে বের হওয়া ড্রপলেটের ৯০ শতাংশ আটকে দিতে পারে কাপড়ের তৈরি মাস্ক। যুক্তরাষ্ট্রের ব্রিঘাম ইয়ং ইউনিভার্সিটির এক গবেষণা এ দাবি করছে।

আল আরাবিয়ার বরাতে জানা যায়, গবেষকরা করোনাভাইরাসের ওপর ১১৫টি গবেষণা পর্যালোচনা করে দেখেছেন কীভাবে ভাইরাসটির সংক্রমণ রোধ সহজে করা সম্ভব। এতে তারা দেখতে পান, কাপড়ের মাস্কই হাঁচি-কাশির ড্রপলেটের ৯০ শতাংশ আটকে দিতে সক্ষম।

গবেষকরা বলছেন, গবেষণায় প্রমাণ হলো যে, কাপড়ের মাস্ক ড্রপলেট আটকে দিতে সক্ষম। কিন্তু এটি যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধ করতে পারে সে বিষয়ে কোনো নিশ্চয়তা নেই। তবে আক্রান্ত ব্যক্তির আশপাশে থাকলে কাপড়ের মাস্ক বেশ কার্যকর প্রমাণ হতে পারে।

তারা বলেন, হাসপাতাল, বেসরকারি খাত, সরকারি প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে করোনার সংক্রমণ রোধে মাস্ক হচ্ছে সবচেয়ে শক্তিশালী এবং সাশ্রয়ী উপায়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কর্তৃপক্ষ এপ্রিল মাসের শুরু থেকেই জনসমাগম হয়- এ রকম স্থানে মাস্ক পরিধানের নির্দেশনা দিয়ে আসছে। বিশেষ করে যেসব স্থানে সামাজিক দূরত্বের নিয়ম মানা যায় না- যেমন মুদি দোকান, ফার্মেসিতে মাস্ক পরিধান অত্যাবশ্যক বলে জানানো হয়।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার শুরুর দিকে বিশেষজ্ঞরা শুধু আক্রান্ত ব্যক্তিকে মাস্ক পড়ার পরামর্শ দিলেও বর্তমানে তারা সবাইকে মাস্ক পরিধানের নির্দেশনা দিচ্ছেন। তাদের মতে, সবাই মাস্ক পরিধান করে চলাচল করলে অনেকাংশেই ভাইরাসটির সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব।