The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

ডায়ানা-চার্লসের বিয়ের কেক উঠছে নিলামে

ডায়ানা-চার্লসের বিয়ের কেক উঠছে নিলামে

বিয়েটা হয়েছিল ঠিক ৪০ বছর আগে। ১৯৮১-র ২৯ জুলাই।এবার সেই চল্লিশ বছর আগের একতাল কেকের টুকরো উঠছে নিলামে।

সেই প্রাচীন কেকের একটি টুকরো আগামী ১১ অগাস্ট উঠছে নিলামে। কতয় বিক্রি হবে? লন্ডনের নিলাম সংস্থা ডমিনিক উইন্টারের হিসেব বলছে, ৩০০ থেকে ৫০০ পাউন্ড তো বটেই। না, জন্মদিনের কেক নয়। কেকের টুকরোর পাশে এখনও লেবেল সাঁটা রয়েছে - 'হ্যান্ডল উইথ কেয়ার, প্রিন্স চার্লস ও প্রিন্সেস ডায়ানা'জ ওয়েডিং কেক'।

বিখ্যাত সেই রাজকীয় বিয়েতে হাতে সাদা গোলাপ-টিউলিপের তোড়া আর সাদা প্রিন্সেস গাউন, মাথায় স্পেনসার টিয়ারা পরে পরীর সাজে সেদিন সেন্ট পলস ক্যাথিড্রালে এসেছিলেন প্রিন্সেস ডায়ানা। যুবরাজ চার্লসের সঙ্গে বিয়ের আসরে তার ওই হাসিমুখ ফ্রেমের প্রেমে এখনও পাগল দুনিয়া। এবার বিখ্যাত হওয়ার পালা তাদের বিয়ের স্মারক ওই প্রাতরাশের টেবিল থেকে আসা কেক-স্লাইসের। মাপে আট ইঞ্চি বাই সাত ইঞ্চি। মার্জিপান-সুগার আইসিংয়ের ওপর সোনালি, লাল আর নীল রঙের রয়্যাল কোর্ট অব আর্মসের প্রতীক। রাজ পরিবারের সম্পদই বটে।

জানা গেছে, ১৯৮১ সালের ওই শুভ দিনে ব্রিটেনের রাজবাড়িতে মোট ২৩টি কেক কাটা হয়েছিল। সেন্টার টেবিলেই ছিল এই পাঁচ ফুট লম্বা ফ্রুটকেক। যে টুকরোটি নিলামে উঠছে, সেটি সেদিন তুলে দেওয়া হয়েছিল রানির কর্মচারী মোয়রা স্মিথকে। আরও অনেকে খেয়েছিলেন সেই কেক। মোয়রা শুধু ওই টুকরোটি অতি যতেœ নিজের কাছে রেখে দেন ২০০৮ সাল পর্যন্ত। পরে এক সংগ্রাহক স্লাইসটি তার থেকে চেয়ে রাখেন নিজের বাড়িতে। নিলামে তোলার জন্য ডমিনিক উইন্টার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ওই সংগ্রাহকই সম্প্রতি যোগাযোগ করেন বলে জানা গেছে।

এখন কেমন চেহারা সেই স্লাইসের! এই তো যেন সদ্য নিখুঁতভাবে কেটে আনা হয়েছে। যেমন ছিল, একেবারে তেমনই অবিকল। তবে আবেগের বশে বা ঝোঁকের মাথায় খেয়ে ফেলাটা বোধহয় একদমই ঠিক হবে না। কেননা কেকটি চল্লিশ বছরের বাসি যে!