The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিরোনাম
  • সোনালী পেপারের ৪০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা অর্ধেক দামে নতুন পণ্য দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ শ্রীমঙ্গলে রেলের জমি পুনরুদ্ধার অভিযানের এক্সাভেটরে দুর্বৃত্তে আগুন পুঠিয়ায় পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের অভিযোগ ১০ টাকার জন্য রিকশা চালককে কুপিয়ে হত্যা সান্তাহারে ২০ শয্যা হাসপাতাল চালুর দাবীতে মানববন্ধন সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব ‘উদ্দেশ্যমূলক’: জবিসাস নড়াইলে প্রাইভেটকার পানিতে, খাশিয়াল ইউপি চেয়ারম্যানসহ নিহত ২ ‘বাথরুম’ হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া নৌ অ্যাম্বুলেন্স! কিস্তির টাকা চাওয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তার বাসায় হামলা
  • সেই অভিযানের জন্য ক্ষমা চাইলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

    সেই অভিযানের জন্য ক্ষমা চাইলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

    প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ধরপাকড়ের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চেয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আর্ডার্ন। সাড়ে চার দশক আগে ১৯৭০-এর দশকে অভিবাসীদের বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযান চালিয়েছিল নিউজিল্যান্ড।

    রোববার (০১ আগস্ট) অকল্যান্ডে আক্রান্ত পরিবার, প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ ও সরকারি কর্মকর্তাদের এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় এ ক্ষমা চেয়েছেন আর্ডার্ন।

    বিবিসি জানিয়েছে, ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও যারা দেশটিতে অবস্থান করছিল, তাদের বিরুদ্ধে দ্য ডন রেইডস নামের ওই অভিযান চালানো হয়েছে। অভিবাসীদের ধরে ধরে নিজ দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল তখন।

    রয়টার্সের খবর বলছে, ১৯৭৪ থেকে ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত এই অভিযান পরিচালিত হয়েছে। তখন নিউজিল্যান্ডে অর্থনৈতিক মন্দা চলছিল। এতে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে আসা অভিবাসী শ্রমিকদের ওপর খড়গহস্ত হয়েছিল দেশটির সরকার।

    আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার সময় কয়েকশ লোক উপস্থিত ছিলেন। জাসিন্দা বলেন, জাতিগতভাবে চিহ্নিত করে নির্দিষ্ট লোকজনের ওপর চালানো অমানবিক সেসব অভিযানে প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিভিন্ন এলাকার মানুষ ভোগান্তিতে পড়েছিলেন। তারা সেই ক্ষত এখনও বয়ে চলছেন।

    তিনি বলেন, ১৯৭০-এর দশকের অভিবাসন আইনের বৈষম্যমূলক বাস্তবায়নে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের লোকজনের ওপর অভিযানের জন্য আজ নিউজিল্যান্ড সরকারের পক্ষ থেকে অকুণ্ঠচিত্তে ক্ষমা চাচ্ছি। ওই আইন বাস্তবায়নের কারণে ডন রেইডস নামে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছিল।

    নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ওই অভিযান ও এলোপাতাড়ি পুলিশি তল্লাশির জন্য সরকার দুঃখ, অনুশোচনা ও অনুতাপ প্রকাশ করছে।

    দুঃখ প্রকাশের অংশ হিসেবে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোর জন্য ১৫ লাখ মার্কিন ডলারের প্রতিষ্ঠানিক ও বৃত্তিমূলক স্কলারশিপের ঘোষণা দিয়েছে নিউজিল্যান্ড সরকার। এছাড়া সামোয়া, টোঙ্গা, ফিজি ও টুভালুসহ অন্যান্য দেশের তরুণদের জন্য ১০ লাখ ডলারের লিডারশিপ স্কলারশিপ দেওয়া হবে।

    জাসিন্দা আর্ডার্ন বলেন, সেসময় প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশ বা অঞ্চলের নন এমন কোনো ব্যক্তি বা তাদের বাড়িতে অভিযান হয়েছে বলে খবর পাওয়া যায়নি। ইউরোপীয়দের উদ্দেশ্য করে কোনো অভিযান বা নির্বিচারে ধরপাকড়েরও ঘটনা ঘটেনি।

    তখন যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বহু অভিবাসীর ভিসার মেয়াদ শেষ হলেও তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযান পরিচালনা করা হয়নি বলে বিবিসির খবর বলছে।

    লোকজনের ওপর এই অমানবিক ও অন্যায় আচরণের ক্ষত পুষিয়ে দিতে নিউজিল্যান্ড সরকারের চেষ্টাকে স্বাগত জানিয়েছেন টোঙ্গোর রাজকন্যা মেলে সুইলিকুটাপু। তিনি বলেন, আর্ডার্নারে এই ক্ষমাপ্রার্থনা আমাদের সম্প্রদায়ের নতুন সূর্যোদয়।


    সর্বশেষ