The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২

শিরোনাম

আমি কখনই মাদক সেবন বা বিক্রির সাথে জড়িত নই: সংবাদ সম্মেলনে অজয়

আমি কখনই মাদক সেবন বা বিক্রির সাথে জড়িত নই: সংবাদ সম্মেলনে অজয়
ছবি: প্রতিনিধি

শাহরিয়ার মিল্টন,শেরপুর প্রতিনিধি: আমি কখনই মাদক সেবন বা বিক্রির সাথে জড়িত ছিলাম না। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। ২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে শেরপুর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন, শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অজয় চক্রবর্তী জয়।

অজয় চক্রবর্তী জয় সংবাদ সম্মেলনে বলেন, বিগত ১৯৯৬/৯৭ সালে কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচন ধর্ম সম্পাদক পদে জয়ী হয়ে আওয়ামীলীগ রাজনীতিতে সক্রিয় হয়। পরবর্তীতে ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়ীত্ব পালন করি। এরপর ধারাবাহিকতায় জেলার সর্বোচ্চ ব্যবসায়ী সংগঠন চেম্বার অব কমার্সের ৪বারের পরিচালকের দায়ীত্ব পালন করি। এছাড়াও দীর্ঘদিন থেকে জেলা পরিবেশক সমিতির সভাপতি, শহর পূজা উদযাপন কমিটির বর্তমান সভাপতি, জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, রোটারি ক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক, জেলা ব্যাডমিন্টন উপ কমিটির সাধারন সম্পাদকের দায়ীত্ব পালন করছি। কিন্তু আমি আওয়ামীলীগ তথা দলের একজন সক্রিয় কর্মী থাকা স্বর্তেও আমার বিরুদ্ধে যে খবর করা হয়েছে তা সম্পুর্নরুপে মিথা ও বানোয়াট। আপনারা জানেন বর্তমানে মাদকের ভয়াবহ ছোবল গ্রাস করছে উঠতি বয়সী তরুন ও যুবকদের। আমি এবং আমার দল সবসময় মাদকের বিরুদ্ধে। ব্যক্তিগত ভাবে আমি নিজেও মাদকের বিরুদ্ধে অতীতে বিভিন্ন সভা সমাবেশ করেছি। এসব কিছুর পরেও আমার বিরুদ্ধে ঢাকা টাইমসহ বিভিন্ন অনলাইন ও বেশ কিছু প্রিন্ট পত্রিকায় যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা নিতান্তই দুঃখজনক। আমি এই খবরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আপনারা কলম যোদ্ধা, আপনারা জাতীর বিবেক। আপনারা উপরোক্ত সব বিষয়ের সত্য উদঘাটন করে তা জাতীর কাছে তুলে ধরবেন। পাশাপাশি প্রকাশিত খবরের বিরুদ্ধে আমি আইনি প্রক্রিয়ায় যাবো।

এসময় এক লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, আপনারা সমাজের দর্পন, জাতীর বিবেক। গত ১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার জাতীয় দৈনিক ঢাকা টাইমস পত্রিকাসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন পত্রিকায় একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। যেখানে আমাকে মাদক সেবনকারী ও বিক্রেতা বলা হয়েছে। যা মিথ্যা, ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত।

এসময় অন্যানোদের মধ্যে শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আরিফুল ইসলাম অপু, ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনি, সেচ্ছাসেবক নেতা তারিফ তৌফিকুর রহমান,শ্রিবরদী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মেরাজউদ্দিন চৌধুরি,সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আরাফাত হোসেন সনেট, তনয় ঘোষ, মাহমুদুল হাসান সুজন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও পড়ুন