The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১

পাসপোর্ট নবায়ন বন্ধ, গ্রেপ্তারের ঝুঁকিতে প্রবাসীরা

পাসপোর্ট নবায়ন বন্ধ, গ্রেপ্তারের ঝুঁকিতে প্রবাসীরা
ছবি: সংগৃহীত

গত আড়াই মাসের বেশী সময় ধরে বিদেশে বাংলাদেশের মিশনগুলোতে নতুন পাসপোর্ট ইস্যু কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের সার্ভার সঠিক সময়ে হালনাগাদ না করায় পাসপোর্ট তৈরির কাজ থমকে গেছে। একটি সার্ভারে এই পাসপোর্ট ছাপানো হতো। জুন মাসে পাসপোর্ট অধিদফতরের এই মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট সার্ভারের (এমআরপি) ধারণ ক্ষমতা তিন কোটির বেশি সীমা পার হয়। এ কারণে পাসপোর্ট প্রিন্ট বন্ধ।

ফলে সৌদি আরব, মালয়েশিয়া, কুয়েত, কাতার, ওমান, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, সিঙ্গাপুর, মালদ্বীপ, লেবাননসহ সারা বিশ্বে কর্মরত প্রবাসীদের অনেকেরই পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও আবেদন করে সাড়া পাচ্ছেন না।

পাসপোর্টের মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার কারণে ভিসার মেয়াদও বাড়াতে পারছেন না। ফলে তাদের সেই দেশে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তারা। আবার পাসপোর্ট না পেয়ে কাজের মেয়াদ বৃদ্ধি করার আবেদনও করতে পারছেন না। কেউ কেউ ছুটিতে দেশে আসতে পারছেন না। রাস্তায় চলাচল থেকে কর্মস্থলেও পড়ছেন ঝামেলায়।

তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। খুব দ্রুত পাসপোর্ট নবায়নের কাজ শুরু করা সম্ভব হবে।

বাংলাদেশের বহিরাগমন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর (ডিআইপি) তিন কোটি এমআরপির জন্য আঙুলের ছাপ নেওয়া ও পাসপোর্ট ছাপানোর চুক্তি করেছিল মালয়েশীয় প্রতিষ্ঠান আইরিশ ইন্টারন্যাশনালের সঙ্গে। সেই কাজ শেষ হয়ে যায় গত জুনের শুরুতেই। তারপর থেকেই সার্ভারে নতুন করে কোনো ডাটা এন্ট্রি হচ্ছে না।

এমন সমস্যা চলতে থাকলেও এ ব্যাপারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে কিছু জানায়নি পাসপোর্ট অধিদপ্তর। সমস্যা বাড়তে থাকার এক পর্যায়ে জুলাই মাসের শুরুর দিকে সেটা জানতে পারে মন্ত্রণালয়। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, মালয়েশীয় প্রতিষ্ঠান আইরিশকে আরও ৬০ লাখ এমআরপির কাজ দেওয়া হবে এবং এই সময়ের মধ্যে কোম্পানিটির বকেয়াও পরিশোধ করে দেবে সরকার।