The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিরোনাম
  • সোনালী পেপারের ৪০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা অর্ধেক দামে নতুন পণ্য দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ শ্রীমঙ্গলে রেলের জমি পুনরুদ্ধার অভিযানের এক্সাভেটরে দুর্বৃত্তে আগুন পুঠিয়ায় পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের অভিযোগ ১০ টাকার জন্য রিকশা চালককে কুপিয়ে হত্যা সান্তাহারে ২০ শয্যা হাসপাতাল চালুর দাবীতে মানববন্ধন সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব ‘উদ্দেশ্যমূলক’: জবিসাস নড়াইলে প্রাইভেটকার পানিতে, খাশিয়াল ইউপি চেয়ারম্যানসহ নিহত ২ ‘বাথরুম’ হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া নৌ অ্যাম্বুলেন্স! কিস্তির টাকা চাওয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তার বাসায় হামলা
  • ইম্প্রুভমেন্ট টের পাচ্ছি, সামনে কমপ্লিকেটেড চরিত্র করার ইচ্ছা আছে: সাবিলা

    ইম্প্রুভমেন্ট টের পাচ্ছি, সামনে কমপ্লিকেটেড চরিত্র করার ইচ্ছা আছে: সাবিলা

    বেশ অনেক দিন পর ছন্দে ফিরেছেন সাবিলা নূর। গেল কয়েক মাস ধরে নিজেকে নতুনভাবে মেলে ধরছেন, নিত্য নতুন চরিত্রে। সে অনুযায়ী দর্শকের ভালোবাসাও কুড়াচ্ছেন দু’হাত ভরে। এবার ঈদে প্রচারিত হওয়া বেশ কিছু নাটক দিয়ে আলোচনায় রয়েছেন টিভি পর্দার জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী।

    এখন পর্যন্ত প্রচার হওয়া অদ্ভুত, আগডুম বাগডুম, স্টোর রুম, মোক্ষ, পারাপার নাটকগুলো থেকে বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছেন।

    সাবিলা নূর বলেন, এবার ডিফারেন্ট কিছু কাজ করার চেষ্টা করেছি। যেমন- ‘স্টোর রুম’ হচ্ছে একদমই ভৌতিক গল্পের, আবার ‘অদ্ভুত’- হরর কমেডি। দুটি কাজ দুরকম, আমার জন্য খুব এক্সপেরিমেন্টাল কাজ ছিলো।

    ‘স্টোর রুম’ করতে গিয়ে আমি খুব ভয় পেয়েছিলাম, একটা সময় কান্নাও করে দিয়েছিলাম। কারণ আমরা হরর লাইট এবং সাউন্ড দিয়ে শুটিং করেছিলাম। কাজটি রিলিজ হওয়ার পর অপূর্ব ভাইয়া ফোন দিয়ে বলল যে, কাজটি দেখো, ভালো হয়েছে। দেখার পর বুঝলাম যে, ভয় পাওয়াটা সার্থক হয়েছে।

    এছাড়া মোক্ষ, আগডুম বাগডুম, পারাপার কাজগুলো থেকে অনেক ভালো সাড়া পেয়েছি। এরমধ্যে ‘পারাপার’ নাটকটি ছিলো আমার গল্প ভাবনায়, প্রথমবার আমি গল্প লিখেছি আর রাফাত মজুমদার রিংকু ভাইয়া খুব সুন্দরভাবে কাজটি করেছেন।

    তাহসান ভাইয়া, মনোজ ভাইয়া দুজনে চমৎকার অভিনয় করেছেন। এ কাজটি নিয়ে দর্শকদের অনেক ভালো ভালো মন্তব্য পেয়েছি সবার ব্যাপারে। সত্যি বলতে আমি যে কাজগুলো চেয়েছিলাম দর্শক দেখুক, সেগুলো দেখেছে এবং ভালো রেসপন্স পেয়েছি আমি।

    তিনি আরো বলেন, এবার ঈদে শুধু আমারই নয়, সবারই কাজ ভালো গিয়েছে। অনেকের কাজই দেখেছি আমি। এবার গল্প প্রধান কাজ হয়েছে বেশি, সেজন্য রেসপন্সও খুব ভালো। সবাই ভালো কাজ করছেন।

    আর আমি আগেও বলেছি, আমি কখনো প্রতিযোগীতায় বিশ্বাসী না। কাউকে প্রতিযোগী মনে করি না। আমি নিজের সঙ্গে নিজে প্রতিযোগীতা করি। আমার আগের কাজগুলো থেকে সামনের কাজগুলোতে ইম্প্রুভ হচ্ছে কি না; সেটা দেখি। আলহামদুলিল্লাহ! দর্শকদের কাছ থেকে ভালো মন্তব্য পাচ্ছি।

    অনেক খুশি হয়েছি এ কারণে যে, দর্শকরা বলছেন, আগের থেকে আমার অভিনয় এবং সবকিছু ইম্প্রুভ করেছে। সেটা নিজেও টের পাচ্ছি। এতেই আমি অনেক খুশি ও আনন্দিত। এটা আমার কাছে বড় প্রাপ্তি।

    যোগ করে তিনি আরো বলেন, আমি সবসময়ই বলি, শেখার তো আসলে কোনো শেষ নেই। চরিত্রে ভ্যারিয়েশন আনারও শেষ নেই। বিভিন্ন রকমের গল্প ও চরিত্র আছে, যা শেষ নেই। সেগুলোতেই নিজেকে প্রেজেন্ট করতে চাই সামনে।

    এখনও মনে হয় যেন কিছুই জানি না। শিখতে চাই আরো অনেক। সামনে আরো অনেক ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে চাই। এখন যে চরিত্রগুলো করছি, সামনে যেন এর চেয়েও কমপ্লিকেটেড চরিত্র প্লে করতে পারি- সে ইচ্ছাই পোষণ করছি।


    সর্বশেষ