The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিরোনাম
  • সোনালী পেপারের ৪০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা অর্ধেক দামে নতুন পণ্য দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ শ্রীমঙ্গলে রেলের জমি পুনরুদ্ধার অভিযানের এক্সাভেটরে দুর্বৃত্তে আগুন পুঠিয়ায় পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের অভিযোগ ১০ টাকার জন্য রিকশা চালককে কুপিয়ে হত্যা সান্তাহারে ২০ শয্যা হাসপাতাল চালুর দাবীতে মানববন্ধন সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব ‘উদ্দেশ্যমূলক’: জবিসাস নড়াইলে প্রাইভেটকার পানিতে, খাশিয়াল ইউপি চেয়ারম্যানসহ নিহত ২ ‘বাথরুম’ হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া নৌ অ্যাম্বুলেন্স! কিস্তির টাকা চাওয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তার বাসায় হামলা
  • করোনার আঁতুড়ঘরে এবার ডেল্টার হানা

    উহানের সব বাসিন্দার করোনা পরীক্ষা করবে চীন
    করোনার আঁতুড়ঘরে এবার ডেল্টার হানা
    করোনার আঁতুড়ঘরে এবার ডেল্টার হানা। ছবি: রয়টার্স

    চীনের উহান থেকে ২০১৯ সালের শেষদিকে সংক্রমণ শুরু করেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। তারপর ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বজুড়ে। কিছুদিন পর চীনে সংক্রমণ বন্ধ হয়ে গেলেও বিভিন্ন দেশে তাণ্ডব অব্যাহত রেখেছে এই ভাইরাস। প্রয়োজনে নিজের ধরন পরিবর্তন করে আক্রমণ শানিয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার পৌঁছে গেছে আঁতুড়ঘর চীনের উহানে।

    এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস যতগুলো ধরন পাল্টেছে, তার মধ্যে সবচেয়ে মারাত্মক হলো ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট। মূলত এই ধরনটিই এখন তাণ্ডব চালাচ্ছে বিশ্বজুড়ে। এক পর্যায়ে এটি পৌঁছে গেছে উহানে। গত ১০ দিন সেখানে তিন শতাধিক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এর মধ্যে ৭ জন ডেল্টায় আক্রান্ত। গত এক বছরের বেশি সময় পর এমন ঘটনা ঘটল।

    ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে উহানেই প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর প্রায় এক বছর ধরে কঠোর বিধিনিষেধের মাধ্যমে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় বেইজিং। কিন্তু নতুন করে আবারও সংক্রমণ বাড়তে থাকায় উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে।

    উহানের ১ কোটি ১০ লাখ জনসংখ্যার প্রত্যেককে এখন করোনা পরীক্ষার আওতায় আনার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। গত কয়েক মাসের মধ্যে চীনে আশঙ্কাজনক হারে নতুন করে সংক্রমণ বাড়ছে। গত ১০ দিনেই দেশটিতে নতুন ৩শ কেস শনাক্ত হয়েছে।

    করোনার অতি সংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণেই নতুন করে দেশটিতে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। চীনের ডজনখানেক প্রদেশ এবং ২০টির বেশি শহরে ইতোমধ্যেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে।

    সে কারণেই রাজধানী বেইজিংসহ অন্য বড় শহরের স্থানীয় সরকার তাদের লাখ লাখ বাসিন্দার গণহারে করোনা পরীক্ষা করছে। এছাড়া লকডাউন এবং কঠোর বিধিনিষেধের মাধ্যমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চলছে।

    ইতোমধ্যেই দেশটির হুনান প্রদেশের কেন্দ্রীয় ঝুঝোউ শহরে সোমবার ১২ লাখ বাসিন্দাকে কঠোর বিধিনিষেধের আওতায় বাড়িতে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আগামী তিন দিনের জন্য ওই শহরে লকডাউন জারি করা হয়েছে। সরকারি এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, এই সময়ে সময়ে গণহারে লোকজনের করোনা পরীক্ষা এবং ভ্যাকসিন কার্যক্রম চালানো হবে।ঝুঝৌ সরকার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সেখানকার পরিস্থিতি এখনও ভয়াবহ এবং জটিল।

    এদিকে, মঙ্গলবার নতুন করে চীনে ৯০ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পরই উহানের সব মানুষের গণহারে করোনা পরীক্ষার ঘোষণা দেয়া হয়। দেশটির ন্যাশনাল হেলথ কমিশন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় স্থানীয়ভাবে ৬১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। একদিন আগেই এই সংখ্যা ছিল ৫৫।


    সর্বশেষ