The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

ভারতকে হতাশ করল আইসিসি!

ভারতকে হতাশ করল আইসিসি!
ছবি: সংগৃহীত

আগামী ৬ আগস্ট থেকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড, পিসিবি কর্তৃক শুরু হবে কাশ্মির প্রিমিয়ার লিগ, কেপিএল। কুড়ি ওভারের এই টুর্নামেন্ট বন্ধ করতে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল, আইসিসিকে চিঠি দিয়েছিল বোর্ড ফর ক্রিকেট কন্ট্রোল অব ইন্ডিয়া, বিসিসিআই।

কেপিএল ইস্যুতে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে হতাশ করল আইসিসি। ঘরোয়া লিগ হওয়ায় এই টুর্নামেন্টে কোন ধরনের হস্তক্ষেপ করবে না সংস্থাটি। পাকিস্তানের জিও টিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আইসিসির এক মুখপাত্র বলেন, ‘কাশ্মির প্রিমিয়ার লিগ কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট নয়। এটা আইসিসির হস্তক্ষেপের বাইরে।’

 

জানা যায়, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) অধীনে আগামী ৬ আগস্ট মাঠে গড়াতে যাচ্ছে কাশ্মীর প্রিমিয়ার লিগ (কেপিএল)। তবে সেখানে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। টুর্নামেন্টটি যেন মাঠে না গড়ায় সেজন্য সব রকম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ভারত।

ইতোমধ্যে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ না করতে বিদেশি ক্রিকেটারদের হুমকি দিয়েছে বিসিসিআই। এমনকি ক্রিকেট বোর্ডগুলোকেও কেপিএলে খেলোয়াড় না পাঠাতে অনুরোধ করেছিল তারা। এমনকি কেপিএলকে স্বীকৃতি না দিতে সরাসরি আইসিসির কাছে লিখিত আবেদন করেছিল বিসিসিআই।

আইসিসিকে অভিযোগ করে বিসিসিআই বলেছে যে, কাশ্মীর নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। কাশ্মীর সন্ত্রাসী বেষ্ঠিত এলাকা হওয়ায় এখানে ক্রিকেট ম্যাচ মাঠে গড়ানো অনেকটা আইসিসি কর্তৃক স্বীকৃতি দেওয়ার মতো।

কিন্তু আইসিসি এ ব্যাপারেও কোন হস্তক্ষেপ করতে রাজি হয়নি। এ প্রসঙ্গে আইসিসি বলেছে, ‘এই টুর্নামেন্ট আইসিসির অধীনে হচ্ছে না, এটা আন্তর্জাতিক কোনো টুর্নামেন্টও না।’

কেপিএলের এবারের আসরে খেলার কথা রয়েছে শ্রীলঙ্কা তিলকারত্নে দিলশান ও দক্ষিণ আফ্রিকার হার্শেল গিবস ও ইংল্যান্ডের ম্যাট প্রিয়র, মন্টি পানেসার, ফিল মাস্টার্ড ও ওয়াইস শাহর। তাঁদেরকে হুমকি দিয়ে বলা হয়েছে যে, কেপিএলে অংশগ্রহণ করলে ভারতে ক্রিকেট নিয়ে কাজ করার ও প্রবেশের সুবিধা হারাবেন তারা।

এদিকে কেপিএলের ব্যাপারে বিসিসিআইয়ের এমন হস্তক্ষেপে বেশ চটেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে আইসিসির কাছে নালিশ করবে বলেও জানিয়েছিলো দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। ১৯৪৭ সালে ভারত-পাকিস্তান আলাদা হয়ে যাওয়ার পর থেকেই দুই দেশের সম্পর্কের বেশ অবনতি হতে দেখা গেছে।