The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১

মেদভেদেভের প্রথম শিরোপা, ইতিহাস গড়া হলো না জোকোভিচের

মেদভেদেভের প্রথম শিরোপা, ইতিহাস গড়া হলো না জোকোভিচের
ছবি: সংগৃহীত

এই বছরের আগের তিন গ্র্যান্ডস্ল্যামের পরিচিত দৃশ্য ছিল দুই সপ্তাহের টেনিসের পর শিরোপা উঁচিয়ে ধরছেন নোভাক জকোভিচ। মেলবোর্ন, লন্ডন, প্যারিস কোনো জায়গাতে এর ব্যতিক্রম হয়নি।

নিউ ইয়র্কের ইউএস ওপেনেও সবাই একই প্রত্যাশায় ছিলেন। জকোভিচ ফাইনাল জিতবেন ও ছাড়িয়ে যাবেন সর্বকালের সেরা তালিকায় থাকা রজার ফেডেরার ও রাফায়েল নাদালের ২০ গ্র্যান্ডস্ল্যামের সংগ্রহকে।

সবকিছুই ঠিকঠাক চলছিল। ফাইনালে পৌঁছে যান বিশ্বের ১ নম্বর টেনিস তারকা। এরপরই হলো অঘটন। শিরোপা জয়ের ম্যাচে হেরে বসলেন ২০ গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ী জকোভিচ। 

সার্বিয়ান গ্রেটকে হারিয়ে ক্যারিয়ারের প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ের স্বাদ নিলেন রাশিয়ার দানিল মেদভেদেভ।

বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে জোকোভিচের বিপক্ষে সরাসরি সেটে হেরে মেজর শিরোপার অপেক্ষা দীর্ঘায়িত হয়েছিল মেদভেদেভের। সাত মাস পর ইউওস ওপেনের ফাইনালে সেই একই প্রতিপক্ষ পেয়ে এবার শেষটা ঠিকই রাঙালেন এই রুশ তারকা। জোকোভিচকে হারটা ফিরিয়ে দিলেন ঠিক একইভাবে, সরাসরি সেটে।

নিউ ইয়র্কের ফ্লাশিং মিডোসে স্থানীয় সময় রোববারের ফাইনালে মেদভেদেভের জয় ৬-৪, ৬-৪, ৬-৪ গেমে।

গ্র্যান্ড স্ল্যামে তৃতীয় ফাইনালে এসে শিরোপার স্বাদ পেলেন দ্বিতীয় বাছাই মেদভেদেভ। গত অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আগে ২০১৯ সালের ইউএস ওপেনে রাফায়েল নাদালের বিপক্ষে হেরেছিলেন তিনি।

বছরের প্রথম তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফরাসি ওপেন ও উইম্বলডন জিতে জোকোভিচ সম্ভাবনা জাগান ৫২ বছর পর প্রথম কোনো পুরুষ খেলোয়াড় হিসেবে ক্যারিয়ার গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের। সার্ব তারকা নিজেই বলেছিলেন, করতে পারলে এটা হবে তার ক্যারিয়ারের ‘সবচেয়ে বড় অর্জন।’

এর আগে দুবার বছরের তিনটি করে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতেছিলেন জোকোভিচ, ২০১১ ও ২০১৫ সালে। হলো না এবারও। সবশেষ পুরুষ খেলোয়াড় হিসেবে ক্যারিয়ার গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ডটা রইল রড লেভারের কাছেই। ১৯৬৯ সালে এই কীর্তি গড়েছিলেন তিনি। 

আরও একটি রেকর্ডের হাতছানি ছিল জোকোভিচের সামনে, রজার ফেদেরার ও রাফায়েল নাদালকে টপকে পুরুষ খেলোয়াড়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২১ গ্র্যান্ড জয়ের। গত জুলাইয়ে উইম্বলডন জিতে ফেদেরার ও নাদালের ২০ গ্র্যান্ড স্ল্যামের রেকর্ড ছুয়েঁছিলেন র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা তারকা জোকোভিচ।

এত এত অর্জনের মুখে দাঁড়িয়ে প্রত্যাশার চাপেই কী না, পুরো ম্যাচেই জোকোভিচ থাকেন নিজের ছায়া হয়ে। বারবার ভুল করেন তিনি, যা তার ক্যারিয়ারে খুব কম সময়ই দেখা গেছে। প্রথম দুই সেটে একবারও প্রতিপক্ষের সার্ভিসে ব্রেক পয়েন্ট নিতে পারেননি। শেষ দিকে তো তার চোখে অশ্রুও দেখা যায়।

সূত্র: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর।