The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

পতনের দ্বারপ্রান্তে হেলমান্দের রাজধানী

পতনের দ্বারপ্রান্তে হেলমান্দের রাজধানী
ছবি: সংগৃহীত

 

আফগানিস্তানের হেলমান্দ প্রদেশের রাজধানী লস্করগাহ দখলের দ্বারপ্রান্তে চলে এসেছে তালেবান। এর মধ্যে সশস্ত্র গোষ্ঠীটির সঙ্গে হেরাত প্রদেশেও তুমুল লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে সরকারি বাহিনী।

গত ২৪ ঘণ্টায় হেলমান্দ প্রদেশে নিরাপত্তা বাহিনীর বিমান ও স্থলপথে হামলায় তালেবানের ৭৭ সশস্ত্র যোদ্ধা নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে আফগান সরকার। 

আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রীর মুখপাত্র ফাওয়া আমান মঙ্গলবার বলেন, হেলমান্দ প্রদেশের রাজধানী লস্করগাহের আশপাশের এলাকায় তালেবানদের লক্ষ্য করে এসব হামলা চালানো হয়।নিহত এ ৭৭ জনের মধ্যে তিনজন তালেবানের সামরিক কমিশনের প্রধান। সরকারি বাহিনীর হামলায় ২২ জন তালেবান আহত হয়েছেন বলেও জানান তিনি।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, জেলা-১ এ যুদ্ধ চলছে যেখানে সোমবার (১ আগস্ট) মার্কিন হামলা চালানো হয়। ওই হামলায় সাত তালেবান যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। প্রদেশটির সংসদ সদস্যরা বলছেন, কারাগার ও পুলিশ হেডকোয়ার্টার এখন তালেবানের নিয়ন্ত্রণে। জেলা-১ এর গভর্নর কম্পাউন্ড শিগগির দখল নিয়ে নেবে তালেবান।

খবরে বলা হচ্ছে, সোমবার ৯ জনের লাশ ও আহত ৮ জনকে হাসপাতালে নিতে দেখা গেছে। হেলমান্দের সিভিল সোসাইটি কর্মী মোহাম্মদ জামি বলছেন, লস্করগাহে যুদ্ধ চলমান। এখানে সরকারি বাহিনী ভালো অবস্থানে নেই।

আরেক কর্মী আখতার মোহাম্মদ বাদিজাই বলছেন, তালেবান মানুষের বাড়িতে বোমা হামলা চালাচ্ছে। গোষ্ঠিটি জনগণের সঙ্গে তাদের বাড়িতে মিশে যাচ্ছে। সাধারণ মানুষকে তারা ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে।

আফগান নিরাপত্তা বিভাগ জানাচ্ছে, হেলমান্দের কাজাকি জেলা ছাড়া অপর ১২ জেলা দখল করে নিয়েছে তালেবান। আর লস্করগাহ শহরের ১০ জেলার ৯টিই তালেবানের দখলে চলে গেছে। হেলমান্দের নজওয়াদ জেলার পুলিশ প্রধান মতিউল্লাহ পোপাল সোমবার সকালে তালেবানের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন।

হেলমান্দের নারী এমপি শোগুফা নওরোজি বলছেন, আমরা শিগগির লস্করগাহের পতন দেখতে পাব। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তালেবান হেলমান্দ প্রদেশে বহু মানুষকে হত্যা ও আহত করেছে।

সোমবার আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি এমপিদের আহ্বান জানান, আফগানের জাতীয় প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা বাহিনীকে সমর্থন করুন এবং জনগণের পাশে থাকুন।

এদিকে সোমবার মধ্যাঞ্চলের পারওয়ান প্রদেশে তালেবানের হামলায় ৫ নিরাপত্তাকর্মী নিহত হয়েছে। চারিকার শহরের পশ্চিমের একটি ফাঁড়িতে এই সংঘর্ষ হয়। এছাড়া বাঘলান প্রদেশের পুলিশ ও জনগণের ভুল বোঝাবুঝিতে সংঘর্ষ হয়। সেখানে ৩ জন নিহত ও ৩ জন আহত হয় বলে জানান প্রদেশ পুলিশের মুখপাত্র আহমদ জাওয়াদ বাশরাত।

সরকার বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৫৫ তালেবান যোদ্ধা নিহত ও ২৩২ জন আহত হয়েছেন। তবে তালেবান এই তথ্য অস্বীকার করে জানিয়েছে, এটা মিথ্যা ও অপপ্রচার।


আরও পড়ুন