The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

চীনেও ডেল্টা আতঙ্ক, নানজিং প্রদেশে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ

চীনেও ডেল্টা আতঙ্ক, নানজিং প্রদেশে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ
ছবি: সিএনএন

করোনাভাইরাস মহামারিতে আবারো বিপদের মুখে চীন। এবার করোনা রূপ পাল্টে ‘ডেল্টা’ হয়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে চীনে। উত্তর চীনের নানজিং প্রদেশে নতুন করে ছড়িয়ে পড়ছে করোনার এই ধরন। 

বিপুল সংখ্যক করোনা পরীক্ষা, নানা স্থানে করোনা রুখতে কড়া বিধিনিষেধের পরেও নানজিংয়ের বিমানবন্দর থেকে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে সংক্রমণ।

 

গত শীতে শেষবার করোনার এই বিপুল সংক্রমণ দেখেছিল চীন। ফের তা দেখা দিল এই জুলাইয়ে এসে। নানজিং প্রদেশে এক দিনে সন্ধান পাওয়া গিয়েছে ২০০ জন করোনা আক্রান্তের।

সংক্রমণের হাত থেকে ছাড় পায়নি বেইজিংও। সেখানে ডেল্টা ধরনে আক্রান্ত একজনের সন্ধান মিলেছে।

প্রশাসন জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি সম্প্রতি নানজিং গিয়েছিলেন। সেখান থেকেই সংক্রমণ নিয়ে তিনি বেইজিংয়ে এসেছেন। বেইজিংয়ে ছয় মাস পর স্থানীয়ভাবে সংক্রমণের হদিস পাওয়া গিয়েছে।

তারা আরও জানিয়েছে, ডেল্টা রূপে প্রথম আক্রান্ত হন নানজিং প্রদেশের বিমানবন্দর-কর্মীরা। দ্রুত তা ছড়িয়ে পড়ে আশেপাশে। বাড়তে বাড়তে সেই সংক্রমণ বৃহস্পতিবার পৌঁছে গিয়েছে ২০০-এ। গত শীতের পর এক ধাক্কায় এতজন করোনা আক্রান্ত হননি উত্তর-পূর্ব চীনে। গত শীতে এই অংশেই ২ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। এবারের সংক্রমণ সেই আতঙ্ক ফিরিয়ে আনছে।

আতঙ্কের এখানে শেষ নয়। প্রশাসন জানিয়েছে, নানজিংয়ের যে বিমানবন্দর-কর্মীরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের সকলেই দুটি করে করোনা-টিকা পেয়েছেন। তবে করোনার নতুন রূপে আক্রান্ত হওয়ার পরেও তাঁদের শারীরিক অবস্থার বেশি অবনতি হয়নি। সামান্য উপসর্গের ভিতরেই সীমাবব্ধ রয়েছে সংক্রমণ।

এই সংক্রমণের পরেই সমস্ত নানজিংয়ের আবাসন এলাকায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। নতুন করে ৯০ লাখ মানুষের করোনা পরীক্ষা করতে শুরু করা হয়েছে। নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে বিমান পরিষেবাও। বেইজিংয়ে এত সতর্কতা সত্ত্বেও সংক্রমণ ঢুকে পড়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে। এই বছরে এর আগে পর্যন্ত সংক্রমণ-শূন্য ছিল বেইজিং।

সূত্র: সিএনএন।


সর্বশেষ