The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১

বাবার চেয়ে ছেলে ২ বছরের বড়!

বাবার চেয়ে ছেলে ২ বছরের বড়!
ছবি: সংগৃহীত

ফরিদপুর সদরের চাঁদপুর ইউনিয়নে জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী গফুর মোল্লার জন্মতারিখ ১৯৪২ সালের ৫ অক্টোবর। আর ছেলে আনোয়ার হোসেনের জন্মতারিখ ১৯৪০ সালের ৫ জুলাই।

অর্থাৎ আনোয়ার হোসেন তার বাবা গফুর মোল্লার চেয়ে বয়সে ২ বছর ৩ মাসের বড়। এ ধরণের প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র সমাজসেবা অফিসে জমা দিয়ে সরকারি বয়স্ক ভাতা উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে আনোয়ারের বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে গত ১ সেপ্টেম্বর একই গ্রামের এক বাসিন্দা এ প্রতারণার বিষয়ের প্রতিকার চেয়ে বোয়ালমারী সমাজসেবা কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

অভিযুক্ত ফরিদপুর সদরের চাঁদপুর ইউনিয়নের ধোপাডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল গফুর মোল্লার ছেলে আনোয়ার হোসেন। তিনি পেশায় মুরগির ব্যবসা করেন।

জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, পুরুষদের ক্ষেত্রে ৬৫ এবং নারীদের ক্ষেত্রে ৬২ বছর না হলে কোনো পুরুষ বা নারী বয়স্ক ভাতার আওতায় আসেন না। প্রতি মাসে ৫০০ টাকা হারে প্রতি ৩ মাস অন্তর বয়স্ক ব্যক্তিদের এই ভাতা প্রদান করা হয়।

আনোয়ার হোসেন ইতিমধ্যে দুই দফা (৬ মাসে) বয়স্ক ভাতার টাকা গ্রহণ করেছেন। এদিকে চাঁদপুর ইউনিয়নটি বর্তমানে ফরিদপুর সদর উপজেলার অন্তর্ভুক্ত হলেও সমাজসেবা বিভাগ এখনো বোয়ালমারীর উপজেলা আওতাধীন রয়েছে।

মো. আনোয়ার হোসেনের কাছে তার বয়স জানতে চাইলে জানান, তার বয়স ৮২ বছর। তবে তার বাবা গফুর মোল্লার বয়স জানতে চাইলে তিনি তা না বলে ফোন কেটে দেন। পরে আবারও তাকে ফোন করলে তিনি বলেন, জাতীয় পরিচয়পত্র যারা করেছেন, তারাই ভুলে তার বয়স বাড়িয়ে দিয়েছেন। এখানে তার কোনো হাত ছিল না।

অন্যদিকে আনোয়ারের বাবা আব্দুল গফুর মোল্লা জানান, তার ছেলে আনোয়ার হোসেনের বয়স বড়জোর ৫৬ বা ৫৭ বছর হতে পারে।

সদরের চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পলাশ দেবনাথ বলেন, বাবার চেয়ে ছেলে দুই বছরের বড়। বিভিন্ন অন্যায় সুযোগ-সুবিধা নেয়ার জন্য পরিকল্পিতভাবে এই বয়স বাড়ানো হয়েছে। এ বিষয়ে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

এ বিষয়ে বোয়ালমারী উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা প্রকাশ কুমার বিশ্বাস বলেন, এরকম একটি লিখিত অভিযোগ আমাদের কাছে এসেছে। এরই মধ্যে ওই ব্যক্তি দুবার ভাতাও তুলেছেন।

তিনি আরও বলেন, বয়স লুকিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে ভাতা তোলা একটি অন্যায় কাজ। বিষয়টি দ্রুত তদন্ত করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও পড়ুন