The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১

ঘুষ দাবি করায় সেই স্যানিটারি ইন্সপেক্টরকে শোকজ

ঘুষ দাবি করায় সেই স্যানিটারি ইন্সপেক্টরকে শোকজ
ছবি: সংগৃহীত

ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ঘুষ চাওয়ায় সিরাজগঞ্জ তাড়াশ উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও এক নৈশ প্রহরীকে শোকজ করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৭ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাড়াশ উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জামাল মিয়া শোভন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ১৫ সেপ্টেম্বর পাঁচটি নির্দেশনা দিয়ে তাদের দুজনকে কৈফিয়ত তলব করা হয়েছে।

শোকজপ্রাপ্তরা হলেন, তাড়াশ উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও জেলা কৃষকলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এস.এম শহিদুল ইসলাম রন্টু ও উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা হাসপাতালের নৈশ প্রহরী গৌড়ী চাঁদ তালুকদার।

জানা গেছে, গত ১৪ সেপ্টেম্বর তাড়াশ উপজেলার ধামাইচ হাটের মসলা ও তেল বিক্রেতা ইমদাদুল হকের কাছে পণ্যে ভেজাল রয়েছে অভিযোগ তুলে ঘুষ দাবি করেন স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ও নৈশ প্রহরী। এ সময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাদের মারধর করে জামা-কাপড় ছিঁড়ে ফেলেন স্থানীয় জনতা।

পরে তাদের দুজনকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়। পরে সংবাদ পেয়ে এসএম শহিদুল ইসলাম রন্টু ও নৈশ প্রহরী গোড়া চাঁদকে থানায় নেয়া হয়। পরে রাত ৯টা দিকে মুচলেকা দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এ ২ জনকে নিজ জিম্মায় ছাড়িয়ে আনেন।

সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন ড. রামপদ রায় জানান, ঘুষ দাবির অভিযোগে তাদের ২ জনকে শোকজ করা হয়েছে এবং একটি টিমকে সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্তপূর্বক আগামী ৭ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। তদন্তে ঘুষ দাবির অভিযোগ প্রমাণিত হলে জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি জানান, স্যানিটারি ইন্সপেক্টর এস এম শহিদুল ইসলাম রন্টু জেলা কৃষকলীগের বর্তমান কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছে।


আরও পড়ুন