The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১

কৃষি সচিব ড. মো. আবদুর রৌফ

নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে রাসায়নিক কীটনাশকের বিকল্প পদ্ধতি উদ্ভাবন প্রয়োজন 

নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে রাসায়নিক কীটনাশকের বিকল্প পদ্ধতি উদ্ভাবন প্রয়োজন 
ছবি: প্রতিনিধি

শামসুল হক ভুঁইয়া, গাজীপুর প্রতিনিধি: কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব (রুটিন দায়িত্ব) ড. মো. আবদুর রৌফ বলেন, দেশে ফসলের পোকা-মাকড় রোধের নামে রাসায়নিক কীটনাশকের অপব্যবহার হচ্ছে। মুজিব বর্ষে আমাদের লক্ষ্য সকলের জন্য খাদ্য নিরাপত্তার পাশাপাশি নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা। আর এ জন্য প্রয়োজন রাসায়নিক কীটনাশকের বিকল্প পদ্ধতি উদ্ভাবন। ইতোমধ্যে বারি’র কীটতত্ত্ব বিভাগের বিজ্ঞানীরা রাসায়নিক কীটনাশকের বিকল্প হিসেবে বিভিন্ন ধরনের জৈব বালাইনাশক পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছে। আমাদের আশা দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে সচেতনতা বৃদ্ধিতে এই কর্মশালা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) এর কীটতত্ত্ব বিভাগের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদনে “পরিবেশ সম্মত উপায়ে বিভিন্ন ফসলের ক্ষতিকর পোকামাকড় দমন ব্যবস্থাপনা” শীর্ষক শত কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধনকালে সচিব এসব কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার ইনস্টিটিউটের কাজী বদরুদ্দোজা মিলনায়তনে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ১০০ জন কৃষক অংশগ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রশিক্ষণার্থী কৃষকদের মাঝে জৈব বালাইনাশক ও নিমের চারা বিতরণ করা হয় এবং জৈব বালাইনাশকের স্টল প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব (রুটিন দায়িত্ব) ড. মো. আবদুর রৌফ। বারি’র মহাপরিচালক ড. মো. নাজিরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল এর নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার, বারি’র পরিচালক (সেবা ও সরবরাহ) ড. মো. কামরুল হাসান, পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও যোগাযোগ) ড. মুহাম্মদ সামসুল আলম, পরিচালক (ডাল গবেষণা কেন্দ্র) ড. দেবাশীষ সরকার, পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. তারিকুল ইসলাম। কীটতত্ত্ব বিভাগের ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আখতারুজ্জামান সরকার এর সঞ্চালনায় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কীটতত্ত্ব বিভাগের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও প্রধান ড. নির্মল কুমার দত্ত। 

প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধন শেষে আগত অতিথিবৃন্দ প্রশিক্ষণার্থী কৃষকদের মাঝে জৈব বালাইনাশক ও নিমের চারা বিতরণ করেন এবং জৈব বালাইনাশকের স্টল প্রদর্শনী পরিদর্শন করেন।


আরও পড়ুন