The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১

চঞ্চলের ন্যাড়া মাথার লুক ঘিরে রহস্য

চঞ্চলের ন্যাড়া মাথার লুক ঘিরে রহস্য
ছবি: সংগৃহীত

শুক্রবার নিজের ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। সেখানে তাকে ন্যাড়া মাথায় দেখা যায়। অভিনেতার চোখে-মুখে বিরক্তির ছাপ। ছবিটি পোস্ট করে চঞ্চল লেখেন, বলি??? না থাক... বলব না।’ ছবির পাশাপাশি এই ক্যাপশনও তার ভক্তদের আগ্রহ বাড়িয়ে দেয়। সকলেই অভিনেতার ওই লুক ও ক্যাপশনের রহস্য জানতে চান।

ঘটনা হচ্ছে, বর্তমানে ‘বলি’ নামে একটি ওয়েব সিরিজের কাজ করছেন চঞ্চল চৌধুরী। পরিচালনা করছেন শংখ দাশগুপ্ত। এই মুহূর্তে সিরিজটির শুটিং চলছে কুয়াকাটায়। ওই সিরিজে থাকা নিজের চরিত্রের প্রয়োজনেই এমন ন্যাড়া মাথায় হাজির হয়েছেন চঞ্চল। কারণ, চরিত্রের প্রয়োজনে বহুরূপী চঞ্চলের এমন চ্যালেঞ্জ নতুন নয়!

নানা মাত্রিক চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। টিভি নাটক কিংবা সিনেমা যেখানে যখন যে চরিত্রে অভিনয় করেন সাবলীলভাবে নিজেকে মানিয়ে নেন তিনি। গল্পের চরিত্র যথাযথভাবে পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে চঞ্চল চৌধুরী চেষ্টার কমতি রাখেন না। এবার চরিত্রের প্রয়োজনে মাথা ন্যাড়া করলেন এ অভিনেতা।  

তবে ‘বলি’ ওয়েব সিরিজটি নিয়ে বিস্তারিত এখনই কিছু বলতে চান না চঞ্চল। তিনি বলেন, ‘এটি ওটিটি প্ল্যার্টফর্ম হইচই কাজ। প্রতিষ্ঠানটি থেকে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবে। আপাতত এ বিষয়ে বলতে বারণ রয়েছে। ’ 

জানা গেছে, ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ‘বলি’ ওয়েব সিরিজের শুটিং শুরু হয়েছে। চলবে টানা দুই সপ্তাহ। এতে চঞ্চল চৌধুরী ছাড়াও অভিনয় করেছেন সোহানা সাবা, জিয়াউল হল পলাশ,  সোহেল মন্ডল রানা, সাফা কবির, মৌসুমি মৌসহ অনেকেই।

সবশেষ ‘তাকদীর’ ওয়েব সিরিজে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সের ড্রাইভারের চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক আলোচিত হয়েছেন চঞ্চল। এজন্য বাংলাদেশর পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গের দর্শকের কাছ থেকেও প্রশংসা পেয়েছেন তিনি।

এদিকে প্রথমবারের মতো ‘রূপকথা নয়’ নামের ওয়েব সিরিয়ালে অভিনয় করছেন চঞ্চল চৌধুরী। জি ফাইভের ব্যানারে নির্মিত এ সিরিয়ালটির প্রথম ২০ পর্ব নির্মাণ করছেন গোলাম সোহরাব দোদুল।

এ ছাড়াও ‘উনলৌকিক’ নামের ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন তিনি। প্রচারের অপেক্ষায় রয়েছে চঞ্চল অভিনীত অমিতাভ রেজা চৌধুরীর পরিচালিত ওয়েব সিরিজ ‘মুন্সিগিরি’।

মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে চঞ্চল চৌধুরীর দুটি সিনেমা। এর একটি গিয়াসউদ্দিন সেলিম পরিচালিত ‘পাপ পুণ্য’, অন্যটি মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ‘হাওয়া’।

 


আরও পড়ুন