The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পরীক্ষায় আসনপ্রতি লড়বে ১১ শিক্ষার্থী

২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পরীক্ষায় আসনপ্রতি লড়বে ১১ শিক্ষার্থী
ফাইল ছবি

মো. মিরাজুল আল মিশকাত, হাবিপ্রবি প্রতিনিধি: দেশের ২০ টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হতে হচ্ছে। এদিন “ক” ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে প্রথমবারের মতো শুরু হওয়ার কথা রয়েছে গুচ্ছ ভর্তিযুদ্ধ।

২০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল আসন সংখ্যা হিসাব করে দেখা যায়, প্রায় বাইশ হাজার শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবে এবারের ভর্তিযুদ্ধে। এর মাঝে বিজ্ঞানে ১১ হাজার ৫৬১ জন,  মানবিকে ৬ হাজার ১২৯ জন,  ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ৩ হাজার ৪৯৫ জন। এছাড়া সকল বিভাগ  হতে ভর্তি হতে পারবে ৭৭০ জন।

ভর্তি পরীক্ষার ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে চাইলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ও গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা বিষয়ক টেকনিক্যাল সাব-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, “গুচ্ছ পরীক্ষা এমন একটি পরীক্ষা যেখানে কোনো পাশ ফেল নেই। মূলত পরীক্ষার মধ্য দিয়ে আমরা শিক্ষার্থীদের স্কোরিং করবো। এরপর স্ব-স্ব বিশ্ববিদ্যালয় সিদ্ধান্ত নিবে কিসের কিসের উপর ভিত্তি করে তারা শিক্ষার্থী ভর্তি করাবে। গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে মূলত আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি কমানোর চেষ্টা করেছি। পাশাপাশি প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম- কানুনের প্রতি শ্রদ্ধিশীল হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর নিজস্ব স্বায়ত্তশাসন বজায় রাখার চেষ্টা করেছি। এখান পর্যন্ত মোট তিনটি ইউনিটে পেমেন্ট করেছে প্রায় ২ লাখ ৩২ হাজার শিক্ষার্থী। এতে গড়ে আসনপ্রতি লড়াই করবে প্রায় ১১ জন শিক্ষার্থী। আমাদের একবারে পরীক্ষা নেয়ার সর্বোচ্চ সক্ষমতা ১ লাখ ৩২ হাজার শিক্ষার্থীর।” 

এসময় অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর আরও বলেন, “কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ের  এমন কিছু সাবজেক্ট রয়েছে যেখানে সব ইউনিটের শিক্ষার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকছে। মূলত গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাপ্ত নাম্বর  ছাড়াও শিক্ষার্থীদের মাধ্যমকি কিংবা উচ্চ-মাধ্যমিকের জিপিএ সহ অন্যান্য বিষয়াবলি দেখে  স্ব-স্ব বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন উক্ত বিষয় গুলোতে শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে পারবে। এটি পুরোপুরি বিশ্ববিদ্যালয় গুলির নিজস্ব সিদ্ধান্তের উপর নির্ভও করবে। করোনা পরিস্থিতি ও শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে আমরা উপযুক্ত সময় নির্ধারণ করেছি। আশা করি  নির্ধারিত সময়ে আমরা পরীক্ষাগুলো নিতে পারবো।”

এদিকে, মানবিক বিভাগের জন্য নির্ধারিত “খ” ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২৪ অক্টোবর এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের জন্য নির্ধারিত  “গ”  ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১লা নভেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য যে,  ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে রয়েছে, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়,  মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।


আরও পড়ুন