The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১

ডয়চে ভেলের প্রতিবেদন

ভোটের স্বার্থে ধর্ম ব্যবহারের অভিযোগের জবাব দিলেন এরদোগান

ভোটের স্বার্থে ধর্ম ব্যবহারের অভিযোগের জবাব দিলেন এরদোগান
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগান। ছবি: সংগৃহীত

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগানের রাজনৈতিক দলের নাম জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (একে পার্টি) হলেও দলটির বিরুদ্ধে ধর্মভিত্তিক রাজনীতিতে সম্পৃক্ততার অভিযোগটা পুরোনোই বলা চলে।

এরদোগানের বিরুদ্ধে ইসলাম ধর্মকে রাজনৈতি উদ্দেশ্যে ব্যবহারের অভিযোগ বড় হয়ে ওঠে ২০০০ সালে। এক সময়ের গির্জা আয়া সোফিয়াকে ১৪৫৩ সালে দখল করে অটোমান সাম্রাজ্য৷ পরবর্তীতে তা মসজিদ এবং তারপর জাদুঘরে রূপান্তর করা হয়৷ তুরস্কে মুসলমান-খ্রিষ্টান ঐক্যের প্রতীক হয়ে ওঠা স্থাপনাটি ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের মর্যাদাও পেয়েছিল৷ কিন্তু আদালতের রায়ে তা আবার মসজিদ হলে জুম্মার নামাজ পড়ে তার উদ্বোধন করেন এরদোগান।

সাম্প্রতিক সময়ে তুরস্কের বাইরেও এরদোগানের সঙ্গে দেখা যাচ্ছে মূলত ধর্মীয় নেতা আলী এরবাসকে৷ আয়া সোফিয়ায় ৯০ বছর পর যেদিন প্রথম নামাজ হলো, সেদিন খুতবা পড়িয়েছিলেন তিনি৷ সেই থেকে গুরুত্বপূর্ণ কোনো সরকারি ভবন উদ্বোধন করা হলেই দেখা যায় তাকে৷

চলতি মাসে আঙ্কারায় একটি নতুন আদালত ভবনের উদ্বোধন করেন এরদোগান। আলী এরবাসকে দিয়ে ইসলাম ধর্ম মোতাবেক বিশেষ দোয়া পাঠ করানোর কারণে আবার শুরু হয় সমালোচনা৷ তুরস্কের ধর্মনিরপেক্ষ রাজনীতিবিদরা বলছেন, এর মাধ্যমে ধর্মনিরপেক্ষ সংবিধানের চরম অমর্যাদা হয়েছে৷ তারা মনে করেন, ধর্মনিরপেক্ষ দেশে কোনো বিশেষ ধর্মাবলম্বীরা সংখ্যায় বেশি হলেও রাষ্ট্রীয় আনুষ্ঠানিকতায় শুধু সেই ধর্মের অস্তিত্ব তুলে ধরা উচিত নয়৷

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে সুউচ্চ এক ভবনের উদ্বোধন করেন এরদোগান। নিউইয়র্কে বসবাসরত তুর্কি কূটনীতিকদের জন্য নির্মাণ করা ভবনটির উদ্বোধনেও নতুন কিছু দেখা যায়নি৷ সেখানেও হাজির ছিলেন আলী এরবাস৷ সেখানেও তার নেতৃত্বে ইসলাম ধর্মমতে দোয়া-দরুদ পড়েই শুভ উদ্বোধন হয় ভবনটির৷

বিরোধীদের অভিযোগ- ২০২৩ সালের নির্বাচনে ভোট বাড়াতেই ইসলাম ধর্মকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছেন এরদোগান। সম্প্রতি ধর্ম বিষয়ক জাতীয় পরিষদ দিয়ানেটকে ঘিরেও এমন অভিযোগ উঠেছে৷ দিয়ানেটের নিজস্ব টেলিভিশন চ্যানেলে ৩০ জন কর্মীকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে৷ বলা হচ্ছে, দিয়ানেটের বাজেট তুরস্কের অনেক মন্ত্রণালয়ের চেয়েও বেশি৷ তারপরও আগামী বছর প্রতিষ্ঠানটির বাজেট বাড়িয়ে ১.৮৬ বিলিয়ন করার ঘোষণা দিয়েছেন এরদোগান।

তুরস্কের ধর্মনিরপেক্ষ রাজনীতিবিদরা সাম্প্রতিক সমীক্ষার তথ্য উল্লেখ করে বলছেন, এরদোগান বিশেষ করে সুন্নি মুসলমানদের ভোট টানতে ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘ইমাম হাতিপ’ স্কুল ও মসজিদের সংখ্যাও বাড়াচ্ছেন৷ গত এক দশকে তুরস্কে মসজিদের সংখ্যা শতকরা দশভাগ বেড়েছে৷

রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ইসলাম ধর্মকে ব্যবহারের অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করেননি রিসেপ তাইয়িপ এরদোগান। বরং তার কার্যালয় থেকে ১০০ বছর আগের একটি ছবি শেয়ার করা হয়েছে৷ সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে, নতুন পার্লামেন্ট ভবনের বাইরে ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে নামাজ পড়ছেন ‘আধুনিক তুরস্কের জনক’ মোস্তফা কামাল আতাতুর্ক৷ ওপরের ছবিতে এরদোগান ও তার স্ত্রী এমিনে৷