The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

ওপেনিং জুটিতে পরিবর্তন আসছে?

ওপেনিং জুটিতে পরিবর্তন আসছে?
ছবি: সংগৃহীত

পর পর দুই দিন টানা দুই ম্যাচ খেলে টানা জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। আগামীকাল শুক্রবার তৃতীয় টি-টোয়েন্টির আগে আজ সবার ছুটি। সারাদিন ক্রিকেটাররা বিশ্রামে কাটাবেন। একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, মধ্যাহ্ন ভোজনের পর টিম মিটিং অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। যেটার অন্যতম আলোচ্য বিষয় ওপেনিং পার্টনারশিপ।

পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে জয় পেলেও বাংলাদেশের ওপেনিং জুটি নিয়ে পুরনো সমস্যা থেকেই গেছে। কিছুতেই দলকে তারা ভালো শুরু এনে দিতে পারছেন না।

দুই ম্যচেই দ্রুত উইকেট হারিয়ে চাপে পড়তে হয়েছে বাংলাদেশকে। পরে দলকে উদ্ধার করেছেন মিডল অর্ডার- লোয়ার মিডল অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা।

ঘরের মাঠে খেলা। তারওপর অস্ট্রেলিয়া দলে এবার নেই স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যারন ফিঞ্চ আর প্যাট কামিন্সের মত বড় নাম। তাই বলে এই অস্ট্রেলিয়া অনেক বেশি দুর্বল?

ব্যাটিং কিছুটা অনভিজ্ঞ ও তারকাশূন্য হলেও বোলিংটা কিন্তু ঠিকই আছে। মিচেল স্টার্ক, জস হ্যাজেলউড, অ্যাডাম জাম্পা আর অ্যাস্টন অ্যাগারের মত ফ্রন্টলাইন বোলিং অস্ত্রগুলোই খেলছেন এই সিরিজে। অতিবড় সমালোচকও মানছেন, অস্ট্রেলিয়ার এই বোলিং বিশ্বমানের। সেই হিসেব ধরলে টাইগার ব্যাটসম্যানরা বেশ ভালো করেছেন।

দুই ম্যাচেই দায়িত্ব নিয়ে খেলেছেন সাকিব আল হাসান। মিডল অর্ডারে তরুণ আফিফ হোসেন ধ্রুব, নুরুল হাসানরাও বেশ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে মোকাবেলা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার শক্তিশালী বোলিংকে।

দুশ্চিন্তা শুধু ওপেনিং জুটি নিয়ে। দুই ওপেনার সৌম্য সরকার আর নাইম শেখ এখন পর্যন্ত আস্থা ও আত্মবিশ্বাস নিয়ে ব্যাটিং করতে পারেননি।

সৌম্য সরকার কেমন যেন অজানা শঙ্কায় ভুগছেন। দেখে মনে হচ্ছে, সৌম্যকে ‘মনের বাঘে’ খাচ্ছে। স্টার্ক আর হ্যাজেলউডের বলের কারুকাজের চেয়ে তাদের গতি আর বাউন্সারই যেন তাকে শঙ্কিত করে তুলেছে।

দুই ম্যাচেই খানিক ভীত-সন্ত্রস্ত্র মনে হয়েছে সৌম্যসকে। আর তাই প্রথম দিন ৯ বলে ২ করার পর দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে রানের খাতাই খাতাই খুলতে পারেননি বাঁহাতি এই ওপেনার।

অপর ওপেনার নাইম শেখ প্রথম দিন বলপিছু প্রায় রান তুলে ৩০ করলেও আউট হয়েছেন খুব বাজেভাবে। গতকাল সেটাও পারেননি। ১৩ বলে ৯ রান করে বোল্ড হন এই বাঁহাতি।

অর্থাৎ দুই ম্যাচেই বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটিকে মনে হয়েছে ভঙ্গুর। প্রথম দিন ১৫ আর বুধবার ১৩‘তে পড়েছে প্রথম উইকেট। যা কিনা চাপ বাড়িয়েছে পরের ব্যাটসম্যানদের ওপর।

জানা গেছে, টিম মিটিংয়ে ওপেনিং জুটি নিয়ে আলোচনা হবে। একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, দল জিতেছে আর এটা পাঁচ ম্যাচের সিরিজ, তাই হয়তো এখনই ওপেনিং জুটি রদবদলের পথে হাঁটবে না টিম ম্যানেজমেন্ট। আরও একটি ম্যাচ মানে আগামীকাল তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতেও সৌম্য সরকার আর নাইম শেখের জুটি ঠিক থাকতে পারে।

তবে শুক্রবার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানরা ক্লিক না করলে ৭ আগস্ট চতুর্থ ম্যাচে ওপেনিংয়ে পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে কপাল খুলে যেতে পারে মোহাম্মদ মিঠুনের। যেহেতু দলে এ মুহূর্তে তৃতীয় ওপেনার নেই, তাই সৌম্য আর নাইমের একজনকে বাদ দিয়ে মিঠুনকে পরিবর্তিত ওপেনার হিসেবে খেলানো হতে পারে।

 


সর্বশেষ