The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১

শিরোনাম
  • সেনবাগে অসহায় গৃহহীনদের জন্য বসতঘর নির্মাণ, পরিবারগুলো খুশি অস্ত্র বিক্রি করতে গিয়ে যুবদল নেতা গ্রেফতার পটিয়ার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের পানি সংকট নিরসনে হাইকোর্টের রায় বাস্তবায়নের জন্য গণশুনানি রাঙ্গুনিয়ার পারুয়ায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যের মৃত্যু ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তিতে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার প্রত্যয় আমি কখনই মাদক সেবন বা বিক্রির সাথে জড়িত নই: সংবাদ সম্মেলনে অজয় মঠবাড়িয়ায় প্রক্সি দিতে এসে ৬ ভুয়া পরীক্ষার্থী আটক পঞ্চগড়ে ২৫ বোতল ফেনসিডিল সহ এক মাদকব্যবসায়ী আটক স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ববিতে আন্তঃবিভাগ ফুটবল ও ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা ২০২১ উদ্বোধন কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যার প্রধান আসামি শাহআলম ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত
  • পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা বাতিল

    পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা বাতিল
    ছবি: সংগৃহীত

    চলতি বছরের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা বাতিলে অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

    প্রতি বছরের নভেম্বরে পিইসি ও ইবতেদায়ি পরীক্ষা শুরু হলেও এ বিষয়ে এ বছর আগে থেকে সেভাবে প্রস্তুতি নেওয়া হয়নি। তাই চলতি বছরের পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা বাতিল করতে ৭ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রস্তাব পাঠায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ প্রস্তাবে সায় দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়।

    প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো প্রস্তাবের সারসংক্ষেপে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণজনিত কারণে গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে এ বছরের ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শ্রেণিকক্ষে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। টেলিভিশন, রেডিওসহ নানা মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চালু ছিল। তবে আন্ত মন্ত্রণালয় সভার সিদ্ধান্তে গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল খোলা হয়েছে। এখন ২০২১ শিক্ষাবর্ষের মাত্র দু-তিন মাস অবশিষ্ট আছে। এই স্বল্প সময়ের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তৈরি ও মুদ্রণ, দেশব্যাপী একযোগে এই পরীক্ষা পরিচালনা করা এবং নির্ধারিত সময়ে ফল প্রকাশ করা কষ্টসাধ্য হবে। করোনা সংক্রমণজনিত কারণে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের পিইসি ও ইবতেদায়ি সমাপনীও গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি।

    সারসংক্ষেপে আরও বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকেও জানানো হয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বল্প সময়ে ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা গ্রহণ ও ফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে না। এ অবস্থায় শ্রেণিকক্ষে শিখন-শেখানো কার্যক্রম বিবেচনা করে ২০২১ শিক্ষাবর্ষের পিইসি ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা গ্রহণের পরিবর্তে নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করে পরবর্তী শ্রেণিতে উন্নীত করা যেতে পারে।

    প্রসঙ্গত, জেএসসি ও পিইসি কোনো পাবলিক পরীক্ষা নয়। এই পরীক্ষা দুটি সরকারের নির্বাহী আদেশে নেওয়া হয়। এ জন্য এই পরীক্ষা না নিতে হলে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের প্রয়োজন রয়েছে। এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কাছে এ বছরের পিইসি ও ইবতেদায়ি না নেওয়ার প্রস্তাব পাঠিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।


    সর্বশেষ

    আরও পড়ুন