The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

টাইগারদের ১৪১ রানের লক্ষ্য দিল স্কটল্যান্ড

টাইগারদের ১৪১ রানের লক্ষ্য দিল স্কটল্যান্ড
ছবি: টুইটার

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রাথমিক পর্বে নিজের প্রথম ম্যাচে জয়ের জন্য ১৪১ রানের টার্গেট পেয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী দিনে দ্বিতীয় ম্যাচে টস হরে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৪০ রান সংগ্রহ করে স্কটল্যান্ড। বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট শিকার করেন মাহেদী হাসান।

রোববার (১৭ অক্টোবর) ওমানের আল আমিরাত ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ফলে প্রথমে ব্যাট হাতে মাঠে নামে স্কটল্যান্ড। ক্রিকেট ইতিহাসে দেশটি দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশের মুখোমুখি হয়।

 

টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে এক উইকেটে ৪৫ রান করা স্কটল্যান্ডর এরপর মেহিদ হাসান ও সাকিব আল হাসানের স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে মাত্র ৮ রানের ব্যবধানে হারায় ৫ উইকেট।

 

৬৩ রানে ৬ উইকেট পতনের পর দলের হাল ধরেন ক্রিস গ্রেভস। ইনিংস শেষ হওয়ার চার বল আগে মোস্তাফিজের শিকার হওয়ার আগে ২৮ বলে চারটি বাউন্ডারি আর দুটি ছক্কায় দলীয় সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন ক্রিস গ্রেভস। ইনিংসের শেষ দিকে তার ব্যাটিং ঝড়েই ১৪০/৯ রান তুলতে সক্ষম হয় স্কটল্যান্ড।

রোববার ওমানের আল আমিরাত ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করে স্কটল্যান্ড।

ইনিংসের শুরু থেকেই সাবধানী ব্যাটিং করে স্কটিশরা। দলীয় ৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় স্কটল্যান্ড। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন অধিনায়ক কাইল কোয়েতজার।

এরপর ম্যাথু ক্রসকে সঙ্গে নিয়ে ৩৮ রানের জুটি গড়েন ওপেনার জর্জ মানসি। এক উইকেটে ৪৫ রান করার পর স্কটল্যান্ড শিবিরে জোড়া আঘাত হানেন অফ স্পিনার মেহেদি হাসান।

অষ্টম ওভারে বোলিংয়ে এসেই দ্বিতীয় বলে স্কটল্যান্ডের হয়ে তিনে ব্যাটিংয়ে নাাম ম্যাথু ক্রসকে এলবিডব্লিউ করেন মেহেদি। ওই ওভারের পঞ্চম বলে জর্জ মানসেকে বোল্ড করে ফেরান তিনি। মেহেদির শিকারে পরিনত হওয়ার আগে ২৩ বলে দুই চার ও দুই ছক্কায় ২৯ রান করেন মানসে। 

এরপর স্কটল্যান্ড শিবিরে জোড়া আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারকে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে সীমানার কাছে তরুণ ক্রিকেটার আফিফ হোসেনের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিনত হন রিচি বিরিংটন। এই রিচির সেঞ্চুরিময় ইনিংসের কারণেই ২০১২ সালে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে হেরে যায় বাংলাদেশ।

১১তম ওভারের দ্বিতীয় বলে রিচিকে ফেরানোর পর চতুর্থ বলে সাকিব ফেরান মাইকেল লিক্সকে। রিচি বিরিংটনের মতো লিক্সও ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন। 

ইনিংসের ১২তম ওভারে বোলিংয়ে এসে ফের উইকেট শিকার করেন মেহেদি। তার তৃতীয় শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন ক্যালাম ম্যাকলিওড। চার ওভারে মাত্র ১৯ রানে ৩ উইকেট শিকার করেন মেহেদি। 

১৮তম ওভারের প্রথম বলে মার্ক ওয়েটকে ক্যাচ তুলতে বাধ্য করেন পেসার তাসকিন আহমেদ। 

ইনিংসের শেষ ওভারে পরপর দুই বলে ক্রিস গ্রেভস ও জোশ ডেভিকে আউট করে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগান মোস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু ভাগ্য ফেবার করেনি। 

স্কটল্যান্ড: ২০ ওভারে ১৪০/৯ (ক্রিস গ্রেভস ৪৫, জর্জ মানসে ২৯, মার্ক ওয়েট ২২, ম্যাথু ক্রস ১১; মেহেদি হাসান ৩/১৯, সাকিব ২/১৭)।