The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

অপ্রত্যাশিত বন্যা নেপালে নিহত অন্তত ১৫০

অপ্রত্যাশিত বন্যা নেপালে নিহত অন্তত ১৫০
ছবি: সংগৃহীত

নিম্নচাপের জেরে একটানা বৃষ্টির ফলে বিপর্যস্ত হিমালয়ের পাদদেশ। নেপাল ও ভারতে ভারী বৃষ্টিপাত এবং তার সঙ্গে ভূমিধস। আল–জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে বন্যা ও ধসের ফলে এই দুটি দেশে মৃতের সংখ্যা সব মিলিয়ে ১৫০ ছাড়িয়েছে।

নদীর পানিও বইছে বিপদ সীমার উপর দিয়ে। এখনো অনেকে নিখোঁজ রয়েছে। দেশ দুটিতে প্রতিদিনই নতুন মরদেহ উদ্ধার হচ্ছে। নেপালে বর্ষা মৌসুমের বাইরে এই ভারী বৃষ্টিপাতকে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটিতে সাধারণত বর্ষা মৌসুম শুরু হয় ১০ জুন এবং ৩ অক্টোবরের মধ্যেই তা শেষ হয়ে যায়। এ অবস্থায় গত দুই দিনের ভারী বর্ষণকে অপ্রত্যাশিত হিসেবে উল্লেখ করছেন সংশ্লিষ্টরা। একই সঙ্গে এমন বৃষ্টিপাতের জন্য জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য দায়ী করেছেন আবহাওয়াবিদরা।

খবরে বলা হয়েছে, এ বছরের বর্ষা মৌসুমের প্রথম মাস তথা ১১ জুন থেকে ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে নেপালে ৬১ জনের প্রাণঘানি ঘটে। অপরদিকে, নেপাল সরকারের দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস পোর্টালের হিসাব বলছে, বৃষ্টিজনিত ঘটনায় চলতি বছরের গত ১৪ জুন থেকে ৯ অক্টোবরের মধ্যে ১৩৬ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এ ছাড়া ৪৫ জন নিখোঁজ এবং ১৪৪ জন আহত হয়েছেন।

কাঠমান্ডু পোস্ট জানিয়েছে, নেপালের ন্যাশনাল ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অথরিটির ডেপুটি মুখপাত্র বেড নিধি খানাল এর আগে বলেছিলেন, চলতি বছর আমরা প্রবল বৃষ্টিপাতের সঙ্গে এক ধরনের অস্বাভাবিক বর্ষার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি। এর সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব জড়িত থাকতে পারে। অপ্রত্যাশিত এ ধরনের বৃষ্টিপাতের কারণে যেমন প্রাণহানি ঘটছে তেমনি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সম্পদ।