The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

পদ্মায় হঠাৎ পানিবৃদ্ধিতে রাজবাড়ী শহর প্রতিরক্ষা বাঁধে আবারও ভাঙন

পদ্মায় হঠাৎ পানিবৃদ্ধিতে রাজবাড়ী শহর প্রতিরক্ষা বাঁধে আবারও ভাঙন
ছবি: প্রতিনিধি

এম. মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী প্রতিনিধি: বুধবার রাত থেকে পদ্মায় হঠাৎ পানি বাড়ায় রাজবাড়ীর পদ্মা নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধে আবারও ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে গোদার বাজার চরসিলিমপুর এলাকায় বাঁধের ৬০ মিটার অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বাঁধের কংক্রিটের তৈরি সিসি ব্লকও ধ্বসে পড়ছে একের পর এক।

নদীর পারের দশটি বসতবাড়ি ভাঙ্গনের হাত থেকে রক্ষার জন্য বৃহষ্পতিবার সকালে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে ভাঙন এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) জরুরি আপদকালীন কাজ শুরু করেছে।

রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোড সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর এপ্রিল মাসে শেষ হওয়া ৭ কিলোমিটার পদ্মার ডান তীর রক্ষাবাঁধের এ প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয় ৩৭৬ কোটি টাকা। প্রকল্পের কাজ শেষ না হতেই জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে শুরু হয় ভাঙন। 

গত বুধবার পর্যন্ত রাজবাড়ী পদ্মা নদীর ডান তীর প্রতিরক্ষা বাঁধের ২০ জায়গায় প্রায় ৮০০ মিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বর্তমানে কিছু জায়গায় নদী থেকে বাঁধের দূরত্ব মাত্র ১০ মিটার। তবে ভাঙনরোধে জরুরি আপদকালীন কাজ করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আরিফুর রহমান অঙ্কুর  বলেন, বুধবারের ভাঙনে প্রতিরক্ষা বাঁধের প্রায় ৬০ মিটার ধ্বসে গেছে। ভাঙনের জায়গায় জরুরি আপদকালীন কাজ হিসেবে জিও টিউব ফেলা হচ্ছে। এছাড়া এখন পর্যন্ত প্রায় প্রতিরক্ষা বাঁধের ২০টি জায়গায় ভাঙন দেখা দিয়েছে।

ইতোমধ্যে ওইসব জায়গার ১ টি স্কুল, মসজিদ, মাদ্রাসা ও শতাধিক বসতবাড়ি নদী ভাঙ্গনের শিকার হয়েছে। আর হুমকির মধ্যে রয়েছে শত শত বসতবাড়ি ও ৪/৫ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

ওইসব স্থানে তাতক্ষণিকভাবে বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙ্গন কিছুটা হলেও ঠেকানো হয়েছে। তবে বর্ষার পরে নতুন প্রকল্প পাশ হলে টেকসই বাঁধ তৈরীর কাজ শুরু হবে।


আরও পড়ুন