The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

শিক্ষার্থীরা যেন উদ্যোক্তা হতে পারে, সে লক্ষ্যে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষার্থীরা যেন উদ্যোক্তা হতে পারে, সে লক্ষ্যে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী
ছবি: প্রতিনিধি

গাজীপুর প্রতিনিধি: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষার্থীরা যেন নিজেদেরকে উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি করতে পারে, সেই লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোতে অনার্স কোর্সের পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে, যাতে শিক্ষার্থীরা নিজেদের উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি করতে পারে। পাশাপাশি দেশে-বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ গ্রহণ করতে পারে। ’

বৃহস্পতিবার বিকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজসমূহে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) ১ম বর্ষে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবাষির্কীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুর ক্যাম্পাসে উপাচার্যের কনফারেন্স রুমে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে এই অনুষ্ঠান উদযাপিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি আরও বলেন,  ‘আপনারা এই কোভিডের সময়ে অনলাইনে এবং সামনা সামনি ক্লাস শুরু করতে যাচ্ছেন। এখন অনেক চ্যালেঞ্জ।  আপনাদের অনেক নতুন স্বপ্ন রয়েছে। আপনাদের সেই স্বপ্নগুলোকে বাস্তবে রূপ দিতে হবে। সে জন্যে সরকার এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় আপনাদের পাশে আছে। আমরা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সার্বিক দিকনির্দেশনা এবং পরামর্শে আপনাদের জন্য অনার্স ডিগ্রির পাশাপাশি নানা ব্যবস্থা গ্রহণ করছি, যাতে আপনারা নানারকম দক্ষতা নিয়ে গড়ে উঠতে পারেন। দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত হতে পারেন। নিজেরা উদ্যোক্তা হতে পারেন কিংবা কর্মসংস্থানের জন্য দেশে বিদেশে নানা সুযোগ তৈরি হয় সেটি গ্রহণ করতে পারেন।  আশা করছি এর মধ্যদিয়ে আপনাদের সেই স্বপ্নগুলো পুরণ হবে। আপনারা দক্ষ জনশক্তি হিসেবে তৈরি হবেন। দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত হবেন। এই দেশটিকে নিয়ে যে অভিষ্ট্য লক্ষ্য- বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা, সেই সোনার বাংলা রূপান্তরে আপনারা অবদান রাখবেন। আপনাদের মাধ্যমে এই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে এই আশাবাদ রইল।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগামি বছরের শুরুতেই শিক্ষার্থীদেও ক্লাশ বাড়ড়ে। কেননা কোভিডের সংক্রমনের হার এওকেবাড়েই কমে আসছে। বাল্য বিবাহের মাধ্যমে যে সকল শিক্ষার্থীরা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে চলে গেছে তাদেরও ফিরিয়ে এনে শিক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। আমরা এখনও পুরো ক্লাশ নিতে পারছিনা। যার কারনে শিক্ষার্থী সংখ্যা ক্লাশে কম রয়েছে।  এসময় উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক এমপি ও যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান বলেন, ‘২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ¯œাতক সম্মান ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের স্বাগত ও অভিনন্দন জানাই। নবীন শিক্ষার্থী হিসেবে যারা স্ব স্ব কলেজ প্রাঙ্গণে ক্লাশ শুরু করতে যাচ্ছে, তাদের সবাইকে আমি শুরুতেই আহ্বান জানাবো যেন নিয়মিত লাইব্রেরিতে যাওয়ার অভ্যাস গড়ে তোলা হয়। শিক্ষকদের সঙ্গে শ্রেণিকক্ষে, অনলাইনে সর্বত্র প্রশ্ন করার অভ্যাস যেমন গড়ে তুলবে, একইসঙ্গে নিজেদের মধ্যে পাঠ্যাভ্যাস গড়ে তুলতে পারলে আমি মনে করি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করে বিশ্ব মানবসম্পদে পরিণত হবে, দক্ষ জনশক্তি হবে, একইসঙ্গে দেশপ্রেমিক মানুষ হিসেবে নিজেদের তৈরি করতে পারবে’ ।

শিক্ষার্থীদের রাষ্ট্র সৃষ্টির বিপ্লব সম্পর্কে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়ে উপাচার্য বলেন, ‘তোমাদের মধ্যে ইতিহাস চেতনা থাকতে হবে। একইসঙ্গে আশা করবো এই প্রজন্ম সমসাময়িক বিশ্ব সম্পর্কে সব রকমের ধারণা নিয়ে একটি সঠিক ধারায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আত্মনিয়োগ করবে। আমাদের বিজ্ঞান ভাবনা, অসাম্প্রদায়িক সমাজ, আমাদের ধর্মনিরপেক্ষ সমাজ, গণতান্ত্রিক সমাজ- এই যে অভিষ্ঠ্য লক্ষ্য, সেই লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য আমাদের নবীন প্রজন্ম নিজেদের তৈরি করবে। আমি এই বিশেষ দিনে আহ্বান জানাবো- তোমরা নিজেদের প্রস্তুত করে যেন দেশপ্রেমিক নাগরিক হয়ে গড়ে ওঠো।’
 


আরও পড়ুন