The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

নড়াইলে রিটার্নিং অফিসারকে হুমকি!

নড়াইলে রিটার্নিং অফিসারকে হুমকি!
রিটার্নিং অফিসারের দ্বায়িত্বে থাকা সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মো. জাহিদুল ইসলাম বিশ্বাস। ছবি: প্রতিনিধি

হুমায়ুন কবীর রিন্টু , নড়াইল প্রতিনিধি:  নড়াইল সদর উপজেলার ভদ্রবিলা ও বাসগ্রাম ইউপি নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসারের দ্বায়িত্বে থাকা সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মো. জাহিদুল ইসলাম বিশ্বাসকে হুমকি দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে নড়াইল সদর উপজেলা কৃষি অফিসারের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, সদর উপজেলার ভদ্রবিলা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মেম্বর পদপ্রার্থী মনিরুজ্জামান মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে বাড়িতে গিয়ে বুঝতে পারেন মনোনয়নপত্রে বড় ধরনের ভুল আছে। সেই ভুল  সংশোধন করার জন্য তিনি বুধবার (২০ অক্টোবর) বিকেলে সদর উপজেলা কৃষি অফিসে আসেন। অফিসে এসেই মতিয়ার নামে এক কর্মচারীকে বলেন দ্রুত ফাইল এনে ভুল ঠিক করে দিতে হবে। মতিয়ার তাকে বুঝিয়ে বলেন সব কাগজপত্র রিটার্নিং অফিসারের কাছে। তিনি ছাড়া কেউ ফাইল দেয়া বা ভুল সংশোধন করে দিতে পারবেন না। এতে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে খারাপ ব্যবহার করেন এবং নড়াইল পৌরসভার ৮ নং উজিরপুর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রাজুকে ডেকে নিয়ে আসেন। এরপর দু’জনে মিলে অফিসে চরম হট্টগোল শুরু করেন। এমনকি তারা অশ্লীল গালি ও হুমকি দেন।

বাক বিতণ্ডা শুনে কাজ রেখে রুমের বাইরে এসে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে উপজেলা কৃষি অফিসার তাদের শান্ত করার চেষ্টা করেন। মেম্বর পদপ্রার্থী মনিরুজ্জামান ও কাউন্সিলর রাজু এ দু’জনে মিলে রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা কৃষি অফিসার মো. জাহিদুল ইসলামের সাথেও চরম দুর্ব্যবহার করেন।

এ ব্যাপারে মেম্বর পদপ্রার্থী মনিরুজ্জামান ও কাউন্সিলর রাজু বলেন, তারা ভুল সংশোধনের অনুরোধ করতে গিয়েছিলেন। সংশোধন করে দিতে না চাওয়ায় একটু বাক বিতণ্ডা হয়েছে।

রিটার্নিং অফিসার ও  সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মো. জাহিদুল ইসলাম বিশ্বাস বলেন, সরকারি অফিসে এসে তারা যা করেছে, তা খুবই আপত্তিকর। অথচ তারাই আবার মিথ্যা তথ্য দিয়ে কিছু মিডিয়ায় আপত্তিকর বক্তব্য ছাপিয়ে আমার ও কৃষি অফিসের ভাবমুর্তি ক্ষুণ্ণ করার অপচেষ্টায় লিপ্ত। আমি তাদের এহেন মিথ্যাচার ও জঘন্য আচরণের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।

তাছাড়া তাদের কুকর্মের বিষয়টি উর্ধ্বতন মহলে জানানো হয়েছে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, কর্তৃপক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিবেন। যতবড় ঝুকি আসুক না কেন নির্বাচনে কাউকে কোন অন্যায় সুবিধা দেয়া হবে না।


আরও পড়ুন