The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১

শিরোনাম
  • সেনবাগে অসহায় গৃহহীনদের জন্য বসতঘর নির্মাণ, পরিবারগুলো খুশি অস্ত্র বিক্রি করতে গিয়ে যুবদল নেতা গ্রেফতার পটিয়ার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের পানি সংকট নিরসনে হাইকোর্টের রায় বাস্তবায়নের জন্য গণশুনানি রাঙ্গুনিয়ার পারুয়ায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যের মৃত্যু ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তিতে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার প্রত্যয় আমি কখনই মাদক সেবন বা বিক্রির সাথে জড়িত নই: সংবাদ সম্মেলনে অজয় মঠবাড়িয়ায় প্রক্সি দিতে এসে ৬ ভুয়া পরীক্ষার্থী আটক পঞ্চগড়ে ২৫ বোতল ফেনসিডিল সহ এক মাদকব্যবসায়ী আটক স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ববিতে আন্তঃবিভাগ ফুটবল ও ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা ২০২১ উদ্বোধন কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যার প্রধান আসামি শাহআলম ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত
  • বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ হ্যান্ডসেট

    বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ হ্যান্ডসেট
    ফাইল ছবি

    ব্যবহারকারীদের কথা বিবেচনা নিয়ে এখন থেকে মোবাইল সেট চালু করলেই স্বয়ংক্রিভাবে নিবন্ধন হবে। এতে অবৈধ ফোন হলেও আর বন্ধ হচ্ছে না।

    বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) এ নির্দেশ দেয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়। এই নির্দেশনার কারণে ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি রেজিস্ট্রার (এনইআইআর) নীতিগত সিদ্ধান্তে কিছুটা পরিবর্তন এনেছে।

    সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বৈধ কিংবা অবৈধ যেকোনো মোবাইল ফোন গ্রাহক ব্যবহার শুরু করলে আর বন্ধ হবে না। এর আগে ১ অক্টোবর হতে বিটিআরসি অবৈধ হ্যান্ডসেটের সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণের চূড়ান্ত নোটিশ দিয়েছিলো।

    ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে জানান, ডিজিটাল বাংলাদেশে প্রযুক্তি ডিভাইস ব্যবহারে জনগণের কোনো ভোগান্তি হতে দেয়া যায় না।

    তিনি বলেন, দেশের মোবাইল নেটওয়ার্কে কোনো হ্যান্ডসেট চালু হলে তা বন্ধ করে দেয়া হবে না। বিটিআরসির কাজ ছিলো দেশে সচল সব হ্যান্ডসেটের বিস্তারিত ডেটাবেইজ রাখা, সেটা সফলভাবে করা হচ্ছে।

    ‘দেশের বাইরে হতে কেনো হ্যান্ডসেট এলে সেটি হতে ভ্যাট-ট্যাক্স আদায়ের কাজটি এনবিআরের। এনবিআর চাইলে বিটিআরসি ভ্যাট-ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে আনা হ্যান্ডসেটের তালিকা দিয়ে দেবে।’ বলছিলেন মন্ত্রী।

    মোস্তাফা জব্বার বলেন, এছাড়া হ্যান্ডসেটটি কীভাবে এসেছে সেটি প্রয়োজন মনে করলে এনবিআর-আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী দেখতে পারে।

    বিটিআরসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে বলেন, বৈধ-অবৈধ কোনো হ্যান্ডসেটই বন্ধ হচ্ছে না। ইতোমধ্যে আমরা এ বিষয়ে ম্যাসেজ দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছি। শিগগির আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে।

    নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি চলতি বছরের ১ জুলাই পরীক্ষামূলকভাবে চালু করেছিলো ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্টার (এনইআইআর)।

    যেখানে বৈধ কিংবা অবৈধ- গ্রাহকের হাতে মোবাইল নেটওয়ার্কে সচল থাকা সকল হ্যান্ডসেট ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিটিআরসির ‘নক অটোমেশন অ্যান্ড আইএমইআই ডেটাবেইজ (এনএআইডি)’ সিস্টেমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিবন্ধিন করা হয়। আর ওই সময়ে নিবন্ধিত হওয়া ওসব হ্যান্ডসেটের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হচ্ছে না বলে জানানো হয়।

    এরপর ১ অক্টোবর হতে নেটওয়ার্কে নতুনভাবে সংযুক্ত সকল অবৈধ হ্যান্ডসেটের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছিলো।

    এখন নতুন এই সিদ্ধান্তে কোনো হ্যান্ডসেটের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হচ্ছে না।

    বর্তমানে দেশে মোবাইল ফোন গ্রাহক প্রায় ১৭ কোটি ৪১ লাখ। প্রতিবছর প্রায় দেড় কোটি মোবাইল হ্যান্ডসেট আমদানি এবং প্রায় দুই কোটি মোবাইল ফোন দেশেই সংযোজিত হচ্ছে।


    সর্বশেষ