The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১

শিরোনাম
  • সেনবাগে অসহায় গৃহহীনদের জন্য বসতঘর নির্মাণ, পরিবারগুলো খুশি অস্ত্র বিক্রি করতে গিয়ে যুবদল নেতা গ্রেফতার পটিয়ার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের পানি সংকট নিরসনে হাইকোর্টের রায় বাস্তবায়নের জন্য গণশুনানি রাঙ্গুনিয়ার পারুয়ায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যের মৃত্যু ঢাবি’র শতবর্ষপূর্তিতে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার প্রত্যয় আমি কখনই মাদক সেবন বা বিক্রির সাথে জড়িত নই: সংবাদ সম্মেলনে অজয় মঠবাড়িয়ায় প্রক্সি দিতে এসে ৬ ভুয়া পরীক্ষার্থী আটক পঞ্চগড়ে ২৫ বোতল ফেনসিডিল সহ এক মাদকব্যবসায়ী আটক স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ববিতে আন্তঃবিভাগ ফুটবল ও ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা ২০২১ উদ্বোধন কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যার প্রধান আসামি শাহআলম ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত
  • ক্যারিয়ারের সবচেয়ে লজ্জার পরাজয় দেখলেন মরিনহো

    ক্যারিয়ারের সবচেয়ে লজ্জার পরাজয় দেখলেন মরিনহো
    ছবি: সংগৃহীত

    কোচদের 'যাযাবর' বলা হয় হোসে মরিনহোকে। পেশাদার ক্লাব ক্যারিয়ারে তার অর্জন এতটাই সমৃদ্ধ যা তাকে বিখ্যাত কোচ হিসেবে রূপান্তর করেছে। ব্যতিক্রম কেবল টটেনহাম হটস্পার অধ্যায়ে। এই ক্লাব থেকেই কেবল শূন্যহাতে বিদায় নিয়েছেন পর্তুগিজ কোচ। পাঁচদিন পর ছাঁটাই করলে হয়তো ইংলিশ লিগ কাপের শিরোপা উপহার দিয়ে আসতে পারতেন টটেনহামকে।

    তবে ইউরোপা কনফারেন্স লিগে বড় ধাক্কা খেল হোসে মরিনহোর টিম। বডো/গ্লিম্ট-এর কাছে এক আধটা নয়, একেবারে হাফ ডজন গোল খেয়ে বসে থাকল তারা। বিশ্রি ভাবে হারল রোমা। ম্যাচের প্রথমার্ধ থেকেই শুরু হয়েছিল বডো/গ্লিম্ট-এর গোলের বন্যা। প্রথমার্ধে তাও কিছুটা ভদ্রস্থ স্কোরলাইন ছিল। ১-২ পিছিয়ে ছিল রোমা। সেই ফলই ম্যাচ শেষে দাঁড়ায় বডো/গ্লিম্ট-এর পক্ষে ৬-১।

    ২১ বছরের কোচিং ক্যারিয়ারে এটাই সবচেয়ে বড় হার মরিনহোর। তার আগের হারটা ছিল ২০১০ সালে। 'এল ক্লাসিকো'তে বার্সেলোনার বিপক্ষে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল মরিনহোর রিয়াল মাদ্রিদ।

    এবার সেই হারটাও ছাপিয়ে গেল। কোচিং ক্যারিয়ারের ১০০৮তম ম্যাচটা যে এমন দুঃস্বপ্ন উপহার দেবে সেটা হয়তো কল্পনাও করেননি পর্তুগিজ কোচ। এমন ভয়ঙ্কর একটা হারের পর গণমাধ্যমকে এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল না মরিনহোর। কিছু না কিছু বলতেই হতো। প্রতিক্রিয়ায় খুব শান্ত থাকলেন তিনি।

    ম্যাচ শেষে স্কাই স্পোর্টসকে চেলসি, রিয়াল মাদ্রিদ, ইন্টার মিলান, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রাক্তন কোচ বললেন, '(পরের ম্যাচে) এই লাইন-আপ (দল) নিয়েই খেলব। কাজেই এর দায়ও আমার। খেলোয়াড়রা চেষ্টা করেছে। কিন্তু মাঠ অনেক ঠাণ্ডা ছিল। আমরা একটা দলের বিরুদ্ধে হেরেছি। যারা আমাদের চেয়ে ভালো করেছে। এটা স্বাভাবিক।'

    খেলা হয়েছে নরওয়ের বোডো শহরে। দেশটা এমনিতেই শীতপ্রধান। ম্যাচের সময় তাপমাত্রা ছিল ছয় ডিগ্রী সেলসিয়াস। যা রোমার জন্য অনুপযোগী। কারণ সাম্প্রতিককালে গড়ে ২৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রায় খেলেছে রোমা। ইতালিয়ান কন্ডিশনের ঠিক বিপরীত অবস্থা নরওয়েতে। এই প্রতিকূলতা বুঝে উঠতে পারেনি রোমা।


    সর্বশেষ