The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

বন্ধ হতে পারে হেলেনা জাহাঙ্গীরের জয়জাত্রা টিভি

বন্ধ হতে পারে হেলেনা জাহাঙ্গীরের জয়জাত্রা টিভি
ছবি: সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপকমিটি থেকে অব্যাহতি পাওয়া হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তারের পর তাঁর  মালিকানাধীন আইপি টিভি 'জয়যাত্রা'র অফিসেও অভিযান চালিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দিবাগত রাত ২টার দিকে রাজধানীর মিরপুরে অবস্থিত ওই আইপি টিভি অফিসে অভিযানের কথা জানায় র‌্যাব।

অভিযানের পর শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকালে র‍্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাদির শাহ বলেন, হেলেনার মালিকানাধীন জয়যাত্রা টিভি অফিসে অভিযানে টেলিভিশন চ্যানেলটির কোনো বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি। তদন্ত করে বৈধ কাগজপত্র পাওয়া না গেলে চ্যানেলটি বন্ধ করে দেওয়া হবে।

 

তিনি বলেন, জয়যাত্রা টিভির কোন বৈধ কাগজপত্র নেই। তবে সম্প্রচার চ্যানেল হিসেবে সকল ধরনের সেটআপ রয়েছে। এখন অধিকতর তদন্তে যদি বৈধ কাগজপত্র না পাওয়া যায় তাহলে চ্যানেলটি বন্ধ করে দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, হেলেনা জাহাঙ্গীরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জয়যাত্রা নামে তার একটি আইপি টিভি রয়েছে বলে জানা যায়। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মিরপুর জয়যাত্রা টিভির কার্যালয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়। হেলেনা জাহাঙ্গীর তার জয়যাত্রা টিভির জন্য সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ করেছিলেন। এমনকি দেশের বাইরেও প্রতিনিধি নিয়োগের নামে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাত ৯ টার দিকে তার গুলশানের বাসায় অভিযান চালিয়ে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করে র‌্যাব। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়।
এ সময় তার বাসা থেকে বিপুল পরিমান বিদেশি মদ, ক্যাসিনো সামগ্রী এবং অবৈধভাবে সংরক্ষণ করা হরিণের চামড়া উদ্ধার করা হয়। এছাড়া, তার বাসা থেকে বিভিন্ন দেশের মুদ্রা, ওয়াকিটকি, ড্রোন ও বিপুল পরিমান ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে তার বাসায় গেছেন বলে জানানো হয়। পরে বাসাটিতে দীর্ঘ সময় তল্লাশি শেষে তাকে আটক করা হয়। দিবাগত রাত সোয়া ১২ টার দিকে হেলেনাকে আটক করে র‌্যাব।

জয়যাত্রা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও হেলেনা গত ১৭ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের উপকমিটির সদস্য হয়েছিলেন। ২০২০ সালে ডিসেম্বরে কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হন তিনি।

সম্প্রতি ফেসবুকে বাংলাদেশ আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ নামের একটি সংগঠনের সভাপতি হিসেবে হেলেনা জাহাঙ্গীরের নাম আসে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত তার সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড সংগঠনের নীতি বহির্ভূত হওয়ায় আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপ-কমিটির সদস্যপদ থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।


সর্বশেষ